PM Suryoday Yojana – ইলেক্ট্রিক বিল নিয়ে আর চিন্তা নেই! ফ্রী বিদ্যুৎ পেতে এখনি প্রধানমন্ত্রীর এই প্রকল্পে আবেদন করুন।

চৈত্র মাসেই এতটাই গরমের প্রভাব যে ফ্যান, এ সি ছাড়া থাকা দায়। গরমকালে ইলেক্ট্রিক বিল (PM Suryoday Yojana) এমনিতেই অনেক বেশি আসে। মধ্যবিত্তদের এই ইলেক্ট্রিক বিল দিতে গিয়েই পকেট ফাঁকা হওয়ার জোগাড় হয়। তবে আপনি এই ইলেক্ট্রিক বিল দেওয়া থেকে মুক্তি পেতে পারেন যদি প্রধানমন্ত্রীর একটি প্রকল্পে অংশ নেন। এই প্রকল্পে বিনামূল্যে বিদ্যুৎ দেওয়া হয়। আপনিও কি এই প্রকল্পে নাম নথিভুক্ত করতে চান তাহলে আগে জেনে নিন এর সম্পর্কে।

Advertisement

Apply PM Suryoday Yojana For Free Electricity Bill

  • প্রকল্পের বৈশিষ্ট্য
  • প্রকল্পের উদ্দেশ্য
  • প্রকল্পের শর্ত
  • আবেদন পদ্ধতি

প্রকল্পের বৈশিষ্ট্য

প্রধানমন্ত্রী ২০২৪ সালে 1লা ফেব্রুয়ারিতে এই প্রকল্পের কথা ঘোষনা করেন। এই প্রকল্পের নাম হল, “প্রধানমন্ত্রী সূর্য ঘর বিজলি যোজনা” (PM Suryoday Yojana). এই প্রকল্পের মাধ্যমে পরিবার গুলো 300 ইউনিট পর্যন্ত বিনামূল্যে বিদুৎ পাবেন। এই প্রকল্পে আপনি বছরে 18 হাজার টাকা সাশ্রয় করতে পারবেন।

Advertisement

নতুন বাজেট পেশ করার সময় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সিতারমন ঘোষনা করেছিলেন, দেশের 1 কোটি বাড়ির ছাদে সৌর প্যানেল বসানো হবে এমন ঘোষনা করেন। এই সৌর প্যানেল বসানোর খরচ সরকার বহন করবে অর্ধেকের বেশি তারসাথে 300 ইউনিট ফ্রি বিদুৎ পাচ্ছেন।

প্রকল্পের উদ্দেশ্য

প্রধামন্ত্রীর এই PM Suryoday Yojana প্রকল্পের উদ্দেশ্য হলো সাধারণ মানুষের বিদ্যুতের খরচ কমানো। বাড়িতে বিদ্যুতের প্রয়োজন অবশ্যই। কিন্ত যে হারে ইউনিট প্রতি বিদুৎতের দাম বাড়ছে তাতে সাধারণ মানুষের পক্ষে বিদ্যুতের বিল মেটাতে নাভিশ্বাস ওঠার মতন অবস্থা। তাই এই প্রকল্পের মাধ্যমে সাধারণ মানুষ বিনামূল্যে ৩০০ ইউনিট বিদ্যুতের সঙ্গে কিছু টাকা ভর্তুকি হিসেবেও পেয়ে যাবেন।

এই PM Suryoday Yojana প্রকল্পে নাম নথিভূক্ত করার জন্য কিছু শর্ত আপনাকে মানতে হবে। বিদ্যুৎ উৎপাদনের অন্যতম উপায় হলো সোলার প্যানেল। সূর্যের আলোকে সংরক্ষিত করে সেটা বিদ্যুৎ হিসাবে ব্যাবহার করে কাজে লাগলে যেমন আর্থিক সাশ্র়য় হয় তেমনি এটি ইউনিক পদ্ধতি আপনাকে বিদুৎতের বিল দিতে হবেনা। কারেন্ট যাওয়ার সম্ভাবনা নেই।

অনেক ব্যক্তি নিজের টাকাতেই বাড়িতে সোলার প্যানেল বানিয়ে সেটা দিয়ে বিদ্যুৎ উৎপাদন করে কাজে লাগাচ্ছে। তবে সাধারণ মানুষের পক্ষে এতটাকা দিয়ে সোলার প্যানেল বসানো সম্ভব নয়। তাই এই সোলার প্যানেল বসানোতে সাহায্য করছে কেন্দ্রীয় সরকার। আপনার বাড়িতেও যদি সোলার প্যানেল বসাতে চান তাহলে সরকারের এই প্রকল্পে আবেদন করতে হবে। আবেদন করার আগে জেনে নেওয়া জরুরী কি কি শর্ত প্রয়োজন।

প্রকল্পের শর্ত

১) PM Suryoday Yojana প্রকল্পে আবেদনকারীর ছাদে মোট জায়গা থাকতে হবে ১৩০ বর্গ ফুট। তাহলেই আপনি আবেদন করতে পারবেন এই প্রকল্পের জন্য। কোনো আবেদনকারী যদি ২kw ‘রুফটপ সোলার প্যানেল‘ বসাতে চান তাহলে সেই ব্যক্তির সর্বমোট ৪৭ হাজার টাকা খরচ হবে। এই খরচের মধ্যে ১৮ হাজার টাকা সরকার ভর্তুকি হিসাবে আবেদনকারী ব্যক্তির অ্যাকাউন্টে পাঠিয়ে দেবেন।

অর্থাৎ আবেদনকারীকে এই প্রকল্পের জন্য বাদবাকি ২৯ হাজার টাকা নিজের থেকে দিতে হবে। ৪৭ হাজার টাকায় যে সোলার প্যানেলটি বসানো হবে সেটি দৈনিক ৪:৩২ Kwh/day বিদ্যুৎ উৎপাদনে সক্ষম অর্থাৎ বাৎসরিক হিসাব অনুযায়ী ১৫৭৬ kwh/Year বিদ্যুৎ উৎপাদনে সক্ষম। এই সোলার প্যানেল বসানোর ফলে এক একটি পরিবার দৈনিক ১২.৯৬ টাকা এবং বছরে ৪৭৩০ টাকা সেভ করতে পারবে।

উদাহরণ স্বরূপ বলা যায়, কোন ব্যক্তির ছাদ যদি ৭০০ বর্গফুট হয় তাহলে সেই ব্যক্তিকে ৩ কিলোওয়াট সোলার প্যানেল বসানোর জন্য আবেদন করতে হবে। এই প্যানেল এবং এর যোগ্যতা অনুযায়ী মিটার বসাতে সেই ব্যক্তির ৮০ হাজার টাকা খরচ হবে। আপনার ছাদের বর্গুফুট অনুযায়ী সোলার প্যানেল বসানোর খরচ অনুযায়ী ভর্তুকি পরিমাণ নির্ধারিত হবে।

খরচ বৃদ্ধি পেলেও সাথে ভর্তুকের টাকাও বৃদ্ধি পাবে এবং তখন সেই ব্যক্তি ভর্তুকি হিসাবে ৩৬ হাজার টাকা পেয়ে যাবেন। সুতরাং উক্ত পরিমান জায়গাতে প্যানেলটি (PM Suryoday Yojana) বসাতে খরচ পড়বে মাত্র ৫০ হাজার টাকা। সরকারের ঘোষণা অনুযায়ী, সর্বোচ্চ ক্ষমতা যুক্ত মিটারের জন্য একজন ব্যক্তি ৭৮ হাজার টাকা অবধি ভর্তুকি পেতে পারে।

২) আবেদনকারীকে অবশ্যই ভারতীয় নাগরিক হতে হবে।
৩) আবেদনকারীর পরিবারকে দরিদ্র বা মধ্যবিত্ত পরিবারের হতে হবে সেইসাথে একটা নিজস্ব ছাদের ঘর থাকতে হবে।
৪) আবেদনকারী বাড়িতে সোলার প্যানেল বসে যাওয়ার পর ডিসকম (DISCOM)-এর মাধ্যমে সোলার প্যানেল পরীক্ষা করা হবে তারপর আবেদনকারীকে পোর্টাল থেকে কমিশনিং সার্টিফিকেট প্রদান করা হবে যেটা এই প্রকল্পের অন্তর্ভুক্ত হওয়ার পর দেওয়া হয়।

শিক্ষার উন্নতির জন্য প্রতিটি ব্লকে ব্লকে তৈরি হবে VIP সরকারি স্কুল! কেন্দ্রীয় সরকারের নতুন প্রকল্প।

আবেদন পদ্ধতি

  • প্রথমে অফিসিয়াল ওয়েবসাইট https://pmsuryaghar.gov.in এ গিয়ে অ্যাপ্লাই ফর রুফটপ সোলার অপশনটি ক্লিক করতে হবে।
  • এরপর আবেদনকারীকে নিজের রাজ্য এবং পছন্দমত বিদ্যুৎ বিতরণ কোম্পানির নাম বেছে নিতে হবে এবং বিদ্যুৎ গ্রাহক নম্বর, মোবাইল নম্বর ও ইমেইল ইনপুট করতে হবে।
  • এরপর আবেদনকারীকে গ্রাহক নম্বর বা কনজিউমার নম্বর ইনপুট করে নতুন একটি পেজ লগইন করতে হবে।
  • এরপর নিজের ডিটেইলস পূরণ করে ফ্রম ফিলাপ করতে হবে। এভাবেই আবেদন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে হবে।

ইলেকট্রিক বিল নিয়ে চিন্তার দিন শেষ মধ্যবিত্তের। এত ইউনিট পর্যন্ত ছাড় দেবে সরকার!

আবেদনের পরে সেই ব্যক্তি বাড়ির ছাদে সোলার প্যানেল বসাতে পারেন। বসানোর জন্য ডিশকম (DISCOM)-এ নির্দেশিত করা বিক্রেতার কাছ থেকেই এই প্যানেলটি (PM Suryoday Yojana)বসাতে হবে। বাড়িতে সোলার প্যানেল টি বসে গেলে আবেদনকারীকে প্যানেলের বিবরণ দিয়ে নেট মিটারের জন্য আবেদন জানাতে হবে।

এভাবেই আপনি অর্ধেক টাকা ভর্তুকি পেয়ে সাথে ৩০০ ইউনিট ফ্রি বিদ্যুৎ পেয়ে যাবেন। মূল্যবৃদ্ধির বাজারে এমন সোলার প্যানেল বসানোর সুবর্ন সুযোগ পাওয়াটা হাতছাড়া (PM Suryoday Yojana) না করাই ভালো। আপনার বাড়ির ছাদ থাকলেই আবেদন জানিয়ে ফেলুন আর কম খরচে অফুরন্ত বিদ্যুৎ পেয়ে যান।
Written by Shampa Debnath.

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button