Ration Card – সাবধান! বাতিল হচ্ছে প্রচুর রেশন কার্ড। আর করবেন না এই কাজ। করলেই মহাবিপদে পড়বেন।

রেশন কার্ড তথা Ration Card একটি গুরুত্তপূর্ণ নথি অন্যান্য নথির মতনই। সরকার থেকে কম দামে কিংবা বিনামূল্যে খাদ্য সামগ্রী পাওয়া যায় এই রেশন কার্ডের মাধ্যমে। দরিদ্র ও নিম্ন মধ্যবিত্তদের কাছে দুবেলা অন্ন সংস্থানের মাধ্যম এই রেশন কার্ড। পারিবারিক আয়ের উপর নির্ভর করে দুই ধরনের ক্যাটাগরির রেশন কার্ড হয়।
এই দুই প্রকারের আরও অনেক ভাগ রয়েছে। যেমন AAY, PHH, SPHH, RKSY I, RKSY Il প্রভৃতি।

Advertisement

New Rules on Ration Cards Cancellations from 1st May

উপরোক্ত রেশন কার্ড তথা Ration Card গুলির মধ্যে AAY, PHH, SPHH কার্ডগুলি BPL তালিকাভুক্ত রেশন কার্ড এবং RKSY I, RKSY II কার্ডগুলো হল APL তালিকাভুক্তির রেশন কার্ড। বিপিএল কার্ডের গ্রাহকরা করোনা কালীন সময়ে থেকে বিনামূল্যে খাদ্য সামগ্রী পাচ্ছেন। APL রেশন কার্ডধারীদের মাথাপিছু 5 কেজি রেশন দেওয়া হয়।

Advertisement

আর বিপিএল কার্ডধারীদের 35 কেজি নির্দিষ্ট রেশন দেওয়া হয়। সরকারের পক্ষ থেকে রেশন কার্ড তথা Ration Cardড নিয়ে উঠে আসছে বড় আপডেট। এরআগে রেশন কার্ডের সাথে আধার কার্ডের লিংক করানোর কথা বলেছিলেন সরকার। সেইমতন অনেকেই লিংক করিয়েছেন। কিন্ত এখনো অনেক ব্যক্তি লিংক করেননি।

আবারও সরকার থেকে ঘোষনা করা হয়েছে আগামী মাস থেকেই হয়ত লক্ষ লক্ষ রেশন কার্ড বাতিল করা হবে। এখন প্রশ্ন হচ্ছে কাদের রেশন কার্ড তথা Ration Card বাতিল হবে? সরকার থেকে ঘোষনা করা হয়েছে যে সমস্ত ব্যক্তি আর্থিক ক্ষমতা সম্পন্ন তারাও এই রেশনজাত সামগ্রী গ্রহণ করছেন। তাদের এই খাদ্য সামগ্রী তারা খাওয়ার জন্য নেয়না।

বরং বাইরে বিক্রি করে দেয়। তাই সরকার থেকে যোগ্য ব্যক্তিদের শুধু রেশন কার্ড তথা Ration Card রেখে অযোগ্যদের রেশন কার্ড বাতিল করার নির্দেশ দিয়েছেন। সেই মোতাবেক যোগ্য ও অযোগ্য দের একটি তালিকা তৈরি করা হবে। রেশন কার্ড টি কোনো কাজে লাগান না। কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে খুব শীঘ্রই হয়ত এই সংক্রান্ত নির্দেশিকা জারি হতে পারে।

রাজ্য জুড়ে তীব্র তাপপ্রবাহের জন্য থাকছে লাল কমলা সতর্কবার্তা! আর কতদিন চলবে এমন গরম?

এই নির্দেশিকা কার্যকর করার জন্য সরকারের পক্ষ থেকে একাধিক পদক্ষেপ গ্রহণ করা হচ্ছে। এর একটাই কারণ রেশনজাত সামগ্রী দেওয়া হয় যাদের দুবেলা দুমুঠো খাদ্য সংস্থান করতে হিমশিম খেতে হয় সেইসমস্ত মানুষের জন্য। তবে কিছু আর্থিক ক্ষমতা সম্পন্ন ব্যক্তিরাও এই রেশন কার্ড তথা Ration Card দিয়ে সুবিধা নিচ্ছে।

Ration Card বা রেশন কার্ড

এই ধরনের অযোগ্য রেশন কার্ডধারীদের শনাক্ত করার কাজ চালাচ্ছে সরকার। এছাড়াও কিছু ব্যক্তিদের থেকে অভিযোগ এসছে তারা পরিমাণের চেয়ে কম খাদ্য সামগ্রী দিচ্ছে। এই পরিস্থিতি মোকাবিলা করার লক্ষ্যে কেন্দ্রীয় সরকারের খাদ্য ও উপভোক্তা বিষয়ক মন্ত্রক পাবলিক ডিস্ট্রিবিউশন সেন্টারগুলির জন্য আনতে চলেছে নতুন নীতি।

টাকার দরকার হলেই টাকা পাবেন। আধার কার্ড থাকলে আর কোন সমস্যা নেই।

এই ধরনের অভিযোগ এলেই এবার বাতিল হতে পারে ডিলারের লাইসেন্স। মূলত, মধ্যবিত্ত ও নিম্নবিত্ত মানুষদের দুবেলা খাবার খেয়ে বেঁচে থাকার জন্য এই রেশন কার্ড তথা Ration Card চালু করা হয়েছে। সেই সুবিধা যদি উচ্চবিত্তরা নেয় তাহলে আর কিছুদিনের মধ্যেই তাদের রেশন কার্ড বাতিল হবে। তাই আগেভাগে সচেতন থাকুন। নাহলে সমস্যার মধ্যে পড়তে হবে।
Written by Shampa Debnath.

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button