রাজ্যের বিশ্ববিদ্যালয়ে গ্রুপ – ডি কর্মী নিয়োগ হতে চলেছে।

নতুন বছরের শুরুতেই রাজ্যের চাকরিপ্রার্থীদের জন্য সুখবর নিয়ে আসা হল গ্রুপ – ডি কর্মী নিয়োগ এই বিশ্ববিদ্যালয়ের তরফে। অনেক চাকরিপ্রার্থীর একটা অভিযোগ ছিল ২০২২ সালে রাজ্য সরকারের তরফে কোন ধরণের চাকরির বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়নি। কিন্তু ২০২৩ চালু হতেই এই বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নিল সরকার। এবার বিশ্ববিদ্যালয়ে গ্রুপ – ডি পদের জন্য কর্মী নিয়োগ করা হতে চলেছে।

Advertisement

গ্রুপ – ডি কর্মী নিয়োগ পদ্ধতি দেখে নিন।

কোন পদে নিয়োগ করা হবেঃ-
এই নিয়োগে সম্পূর্ণ ভাবে গ্রুপ – ডি কর্মচারী পদে নিয়োগ হতে চলেছে। এই ছাড়া আর কোন পদের উল্লেখ করা হয়নি বিশ্ববিদ্যালয়ের দ্বারা। এছাড়াও জেনে রাখা উচিত এই নিয়োগ সম্পূর্ণ রূপে চুক্তি ভিত্তিক হতে চলেছে। সেই জন্য স্থায়ী কর্মীদের মতো সুবিধা এই গ্রুপ – ডি কর্মীরা পাবেনা।
কোন বিশ্ববিদ্যালয়ে আবেদন করা যাবেঃ-
পশ্চিমবঙ্গ সরকারের অন্তর্গত পুরো রাজ্য ব্যাপী সকল বিশ্ববিদ্যালয়ে এই নিয়োগ হতে চলেছে।

Advertisement

নতুন বছরের শুরুতেই সুখবর, LIC দেশেজুড়ে কর্মী নিয়োগ করতে চলেছে।

কি যোগ্যতা লাগবেঃ-
১. চাকরিপ্রার্থীকে মূল রূপে পশ্চিমবঙ্গের স্থায়ী বাসিন্দা হতে হবে।
২. রাজ্যের শিক্ষা বোর্ডের থেকে তাকে উচ্চমাধ্যমিক পাস করতে হবে।
৩. আবেদনকারির রেশন কার্ড ও আধার কার্ড থাকা বাধ্যতামূলক।

আবেদনের পদ্ধতিঃ-
১. আবেদন করার জন্য আপনাকে কাছাকাছি কোন বিশ্ববিদ্যালয়ে গিয়ে খোঁজ নিতে পারেন বা অফিসিয়াল ওয়েব সাইটে গিয়ে Career অপশন চেক করতে পারেন।
২. এই ধরণের সকল আবেদন অনলাইন এর মাধ্যমে হয়ে থাকে।

গ্রুপ – ডি কর্মী নিয়োগে আবেদন করতে কি নথি প্রয়োজন হবেঃ-
১. উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার প্রমানপত্র। মার্কসিট ও সার্টিফিকেট।
২. নিজের সরকারী প্রমানপত্র যেমন – আধার কার্ড, রেশন কার্ড থাকতে হবে।
৩. আগে কোন কর্মের অভিজ্ঞতা থাকলে তার প্রমানপত্র।
৪. নিজের বর্তমানের তলা একটা রঙিন পাসপোর্ট সাইজ এর ফটো।

বেতন কত পাবেনঃ-
এর আগেই আমরা আলোচনা করেছি এই গ্রুপ – ডি পদে নিয়োগ সম্পূর্ণ চুক্তিভিত্তিক হতে চলেছে। বিশ্ব বিদ্যালয়ের তরফে জানানো হয়েছে ১০ হাজার টাকা করে বেতন দেওয়া হতে পারে। কিন্তু সম্পূর্ণ বেতন ইন্টারভিউ ও যোগ্যতার ওপরে নির্ভর করবে।

Axis Bank এ বিপুল সংখ্যক স্থায়ী কর্মী নিয়োগ, অনলাইনে আবেদন করুন।

নিয়োগ ও নিয়োগের সময়সীমাঃ-
গ্রুপ – ডি কর্মী নিয়োগের জন্য ইন্টারভিউ ও যোগ্যতার প্রমান পত্রের ওপর নির্ভর করতে চলেছে। ২০২৩ সালের জানুয়ারি মাসের ৭ তারিখ পর্যন্ত আবেদন করা যাবে বলে জানানো হয়েছে। তাই আর দেরি না করে শীঘ্রই আবেদনের প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে ফেলুন।
এই নিয়ে আপনাদের মত নিচে কমেন্ট করে জানাবেন। পছন্দ হলে শেয়ার ও সাবসক্রাইব করুন। সঙ্গে থাকুন এই ধরণের আর খবরের আপডেট পাওয়ার জন্য।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button