পশ্চিমবঙ্গের পড়ুয়াদের জন্য ৫টি নতুন স্কলারশিপ, আবেদন করলেই যেকোনো একটি পাবেন।

যেকোনো বৃত্তি হলো ছাত্র-ছাত্রীদের বন্ধু। স্কলারশিপ বানানোই হয়েছে ছাত্র-ছাত্রীদের সহায়তার জন্য যেসব ছাত্র-ছাত্রী অর্থনৈতিকভাবে দুর্বল তাদের সাহায্যের হাত বাড়িয়ে তাই বিভিন্ন ধরনের স্কলারশিপ। ক্লাস ফাইভ থেকে শুরু করে স্নাতক বা স্নাতকোত্তর যে কোন স্তরে আবেদন করতে পারবেন স্কলারশিপে। তবে তার আগে আপনাকে দেখে নিতে হবে কোন স্কলারশিপ কাদের জন্য অর্থাৎ কোন ক্যাটাগরিতে পড়ছে সেই অনুযায়ী আপনাকে আবেদন করতে হবে।

Advertisement

স্কলারশিপের বিস্তারিত জেনে আবেদন করুন এখনি।

এই সুবিধা অর্থাৎ স্কলারশিপ আপনি বেসরকারি এবং সরকারি উভয় ক্ষেত্রেই পেতে পারেন। সরকারি বৃত্তি গুলির কথা অনেকেই জানে কিন্তু আপনারা কি জানেন কতগুলি বেসরকারি ভালো ভালো বৃত্তি আছে যার সুবিধা নিয়ে আপনি আপনার পড়াশোনা শেষ করতে পারবেন। এরকমই কিছু প্রাইভেট অর্থাৎ বেসরকারি বৃত্তি নিয়ে আজকে আলোচনা করব আপনাদের সুবিধার্থে।

Advertisement

১) অনন্ত মেধাবৃত্তি
২) রায় ও মার্টিন বৃত্তি
৩) জিপি বিল্ডার্স বৃত্তি
৪) ALO মেধা বৃত্তি
৫) জিন্দাল বৃত্তি
৬) প্রিয়মবদা বিড়লা বৃত্তি
৭) কলগেট বৃত্তি

কলগেট বৃত্তি এর বিস্তারিত জানুন:
শিক্ষার্থীরা প্রত্যেক বছর ত্রিশ হাজার টাকা পর্যন্ত বৃত্তি পেতে পারেন। এর জন্য ছেলেদের ক্ষেত্রে ৬৫ শতাংশ এবং মেয়েদের ক্ষেত্রে ৬০ শতাংশ নম্বর পেতে হবে। এটি ন্যূনতম নাম্বার এছাড়াও আপনি যত বেশি নাম্বার পাবেন তার উপর নির্ভর করে আপনার আরো সুযোগ সুবিধা পাওয়ার পথ প্রশস্ত হবে। বৃত্তি এর জন্য আপনাকে অনলাইনে আবেদন করতে হবে। যদি এই স্কলারশিপের ব্যাপার আপনি বিস্তারিত জানতে চান তবে নিচে দেওয়া ওয়েবসাইটে গিয়ে দেখতে পারেন https://Colgatecares.co.in/keepindiastarted.html

অনন্ত মেধাবৃত্তি:
এই বৃত্তি শিক্ষার্থীরা ১০ হাজার থেকে ১৫ হাজার টাকা পর্যন্ত বৃত্তি পেতে পাবেন। স্কলারশিপ এর ক্ষেত্রে দর্শন এবং দ্বাদশ শ্রেণীর বোর্ড এক্সামে ৭০ শতাংশ নাম্বার বা তার বেশি পেলে আবেদন করতে পারবেন এবং শিক্ষার্থীদের পরিবারের আয় ৬০ হাজার টাকার কম হতে হবে। মাধ্যমিক সি বি এস সি, আই সি এস সি, উচ্চতর সেকেন্ডারি, একাদশ বা দ্বাদশ শ্রেণী, স্নাতক, ইঞ্জিনিয়ারিং, মেডিকেল, ফার্মেসি বিভাগে যেকোন শিক্ষার্থী স্কলারশিপের জন্য আবেদন করতে পারবেন। প্লিজ স্কলারশীপের বিস্তারিত জানতে পারেন। https://www.ananteducation.org/wbananteducation.php

রায় ও মার্টিন বৃত্তি:
রায় ও মার্টিন নাম অনেকেই শুনেছেন। এটি একটি বইয়ের প্রকাশনী অর্থাৎ উচ্চ মাধ্যমিক বা মাধ্যমিকের ছাত্র-ছাত্রীরা শুধু নয় আরো মেছো ক্লাস থেকে শুরু হয়ে যায় এদের প্রকাশনীর সহায়িকা বই এবং পাঠ্য বই। শিক্ষার্থীদের শুধু এইভাবে নয় স্কলারশিপ দিয়েও সাহায্য করে থাকে রায় ও মার্টিন। এইচ স্কলার্শিপের আওতায় থাকার শিক্ষার্থীরা এককালীন ১০ হাজার টাকা পর্যন্ত পান। এদের আবেদনের পদ্ধতি একটু আলাদা প্রত্যেক স্কুল কিছু একটি করে আবেদন পত্র জমা দিতে পারবেন শিক্ষার্থীরা।

জিপি বিড়লা বৃত্তি:
শিক্ষার্থীরা পঞ্চাশ হাজার টাকা পর্যন্ত স্কলারশিপ পেতে পারেন। ওয়েস্ট বেঙ্গল ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য ৮৫ শতাংশ এবং আই সি এস ই আই এস ই শিক্ষার্থীদের জন্য নব্বই শতাংশ নাম্বার বরাদ্দ। এছাড়াও হায়ার সেকেন্ডারি দ্বাদশ শ্রেণির যে কোন শাখায় পড়া শিক্ষার্থী স্নাতকের যেকোনো শাখায় পড়া শিক্ষার্থী, ইঞ্জিনিয়ারিং, মেডিকেল এবং ফার্মেসির শিক্ষার্থীরা এই স্কলারশিপের জন্য আবেদন করতে পারবেন। অনলাইন এবং স্পিড পোস্টের উভয় পদ্ধতিতেই আপনি আবেদন করতে পারবেন।
বিস্তারিত জানতে আপনি নিচের লিংকে ক্লিক করতে পারেন
https://www.wbguider.com/2022/09gpbirla-scholarship-apply.html

ALO মেধাবৃত্তি:
স্কলারশিপের শিক্ষার্থী প্রত্যেক বছর ৫০০০ টাকা করে পাবেন। আবেদন করবার জন্য শিক্ষার্থীর প্রতি সায়েন্স এবং কমার্স এর ব্যাকগ্রাউন্ড থেকে আসে তাহলে ৭৫ শতাংশ এবং আট থেকে হলে ৭০ শতাংশ নাম্বার পেতে হবে। ৮৫ শতাংশর ওপরে নাম্বার পেলে তার আরো বিশেষ সুবিধা পাওয়ার পথ প্রশস্ত হবে। http://aalo.org.in/scholarship.php
এই লিংকে গিয়ে আপনি আরো বিস্তারিত করতে পারেন।

জিন্দাল বৃত্তি:
সীতারাম জিন্দাল ফাউন্ডেশনের তরফ থেকে প্রায় প্রত্যেক বছর ১২ হাজার শিক্ষার্থী থেকে এই বৃত্তি প্রদান করা হয়ে থাকে। এই স্কলারশিপের অধীনে থাকা শিক্ষার্থীরা বছরে ১০ হাজার টাকা থেকে ৩৫০০০ টাকা পর্যন্ত বৃত্তি পায়। একাদশ থেকে শুরু করে আইটি আই, যে কোন ডিপ্লোমা শাখা, স্নাতক, স্নাতকোত্তর, ইঞ্জিনিয়ারিং, মেডিকেল, মেডিকেল টেকনিশিয়ান, ফার্মেসি প্রত্যেকটি বিভাগের ছাত্র-ছাত্রীরা এই বৃত্তি পেতে আবেদন করতে পারবে। আবেদন করবার জন্য ছেলেদের ক্ষেত্রে ৬৫ শতাংশ এবং মেয়েদের ক্ষেত্রে ৬০ শতাংশ নাম্বার পেতে হবে। আপনি দুভাবেই আবেদন করতে পারেন অনলাইনে মাধ্যমে এবং স্পিড পোস্টের মাধ্যমে।
https://www.sitaramanjindalfoundation.com

সব মেয়েরা পাবে 1 লক্ষ 50 হাজার টাকা স্কলারশিপ।

প্রিয়মদা বিড়লা বৃত্তি:
স্কলারশীপে উচ্চমাধ্যমিকে পর থেকে যে কোন শিক্ষার্থী আবেদন করতে পারবেন। বছরের প্রায় ২৪ হাজার টাকা পর্যন্ত বৃত্তি পেতে পারেন। আবেদন করবার জন্য ছেলেদের ক্ষেত্রে ৫৫ শতাংশ এবং মেয়েদের ক্ষেত্রে ৮০ শতাংশ নাম্বার পেতে হবে।

Related Articles

One Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button