Driving Licence – ড্রাইভিং টেস্ট ছাড়াই পাওয়া যাবে ড্রাইভিং লাইসেন্স, বড় ঘোষণা মোদী সরকারের।

ড্রাইভিং লাইসেন্স (Driving Licence) পেতে হলে এতদিন ড্রাইভিং টেস্ট ছিল বাধ্যতামূলক। আপনার গাড়ি কেনার ইচ্ছা হয়েছে আর চিন্তা করছেন কিভাবে ড্রাইভিং লাইসেন্স মিলবে। কারণ সেটা পাওয়া একটা ঝক্কির ব্যাপার। অনেক পরীক্ষার নিয়ম রয়েছে। সম্পূর্ণ পরীক্ষা পাশ করতে না পারলে আপনি নাও পেতে পারেন ড্রাইভিং লাইসেন্স। কিন্ত সেসব এখন আর চিন্তা নেই।

Advertisement

Driving Licence New Rules.

কেন্দ্রীয় সরকার নতুন নিয়ম জারি করেছে এই ড্রাইভিং লাইসেন্সের (Driving Licence) জন্য। আর সেজন্য RTO অফিসে গিয়ে ঘণ্টার পর ঘন্টা লাইনে দাড়িয়ে থাকতে হতো এই লাইসেন্স পাওয়ার জন্য। কিন্ত সেসব এখন অতীত। নতুন কিছু নিয়ম জারি করল কেন্দ্রীয় সরকার। আর সেই নিয়ম শুনে আপনিও খুশি হবেন।

Advertisement

এখন আর ড্রাইভিং টেস্টের প্রয়োজন নেই। ড্রাইভিং লাইসেন্স (Driving Licence) পাওয়ার জন্য আগের নিয়মগুলো কে পরিবর্তন করে কিছুটা সরল করা হয়েছে। এখন আপনাকে RTO তে গিয়ে কোনও ধরণের ড্রাইভিং পরীক্ষা দিতে হবে না। কেন্দ্রীয় সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক মন্ত্রক এই নির্দেশিকাগুলি ঘোষণা করেছে এবং সেগুলি এখন কার্যকর হয়েছে।

ড্রাইভিং স্কুল অ্যান্ড ট্রেনিং মন্ত্রকের দেওয়া তথ্য অনুসারে এখন থেকে ড্রাইভিং লাইসেন্স পেতে RTO অফিসে যেতে হবেনা। এখন আপনি যে কোনো স্বনামধন্য ড্রাইভিং ট্রেনিং ইনস্টিটিউট থেকে লাইসেন্সের জন্য আবেদন করতে পারবেন।

আবেদনকারীদের সেই ট্রেনিং ইনস্টিটিউট থেকেই একটা ড্রাইভিং টেস্ট পরীক্ষা নেওয়া হবে। সেই পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হলে তারা ড্রাইভিং স্কুল থেকে সার্টিফিকেট পেয়ে যাবেন। এই সার্টিফিকেটের ভিত্তিতে আবেদনকারীর ড্রাইভিং লাইসেন্স ইস্যু করতে পারবেন। তাই RTO অফিসে গিয়ে অপেক্ষা করতে হবেনা দীর্ঘ লাইনে দাঁড়িয়ে।

লটারি জিততে হলে কীভাবে টিকিট কাটতে হয়, জেনে নিন গোপন পদ্ধতি।

নির্দেশিকা গুলো হলোঃ
দুই চাকার, তিন চাকার ও হালকা মোটরযানের প্রশিক্ষণ সুবিধার জন্য ন্যূনতম এক একর জমি এবং মাঝারি ও ভারী যাত্রীবাহী পণ্যবাহী যানবাহন বা ট্রেলারের জন্য কেন্দ্রের জন্য দুই একর জমি প্রয়োজন হবে। প্রশিক্ষকদের কমপক্ষে দ্বাদশ শ্রেণির ডিপ্লোমা, কমপক্ষে পাঁচ বছরের ড্রাইভিং অভিজ্ঞতা এবং ট্রাফিক আইন সম্পর্কে ভাল ধারণা থাকতে হবে। হালকা মোটরযানে কোর্স চালানোর জন্য সর্বোচ্চ ৪ সপ্তাহ ২৯ ঘণ্টা সময় দেওয়া হয়েছে।

২১ ঘণ্টার জন্য আবেদনকারীকে সাধারণ রাস্তা, গ্রামীণ রাস্তা, মহাসড়ক, শহরের রাস্তা, পার্কিং, পাহাড়ের উপরে ও নিচে রওনা হওয়া সহ অন্যান্য বিষয় শিখতে হবে। এ ছাড়া ৮ ঘণ্টায় রাস্তায় ট্রাফিকের সময় কী কী বিষয় মাথায় রাখতে হবে এবং ট্রাফিক সম্পর্কিত তথ্য, দুর্ঘটনার কারণ বোঝা, প্রাথমিক চিকিৎসা এবং গাড়ি চালানোর সময় পেট্রল-ডিজেল ইত্যাদি বিষয় অন্তর্ভুক্ত থাকবে।

বাজাজ ফিনান্স এর কার্ড আছে? রিজার্ভ ব্যাংকের করা শাস্তি। গ্রাহকদের সতর্কবার্তা।

এই নতুন নিয়ম জারি হওয়ার পর নতুন যারা গাড়ি কিনে চালানোর কথা ভাবছেন তাদের অনেকটাই ঝামেলা থেকে রেহাই মিলল। কাছাকাছি কোনো ভালো ড্রাইভিং ইনস্টিটিউট থেকে প্রশিক্ষণ নিয়ে পরীক্ষা দিয়ে পেয়ে যান লাইসেন্স।
Written by Shampa Debnath.

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button