Krishak Bondhu Payment – কৃষক বন্ধুর টাকা ঢুকছে কিনা কীভাবে জানবেন? রইলো সহজ উপায়।

Krishak Bondhu Payment – পুরো তথ্য জানতে পড়ুন বিস্তারিত।

ভারতবর্ষ কৃষি প্রধান দেশ। ভারতের মোট ৮ শতাংশ ফসল (Krishak Bondhu Payment) পশ্চিমবঙ্গে উৎপন্ন হয়। এই রাজ্যের বেশিরভাগ মানুষ চাষাবাদ করে থাকেন। এখনও পশ্চিমবঙ্গের বেশিরভাগ গ্রামে চাষাবাদ হয়ে থাকে। তবে এত বৃহৎ জনজাতি চাষের সাথে যুক্ত থাকলেও, আয় খুব একটা বেশি হয় না‌‌। যার ফলে কৃষক বন্ধুদের অনেক সময় লোকসানের মুখোমুখি হতে হয়। আবার মহাজনের কাছ থেকে ভারী সুদে ঋণ পর্যন্ত নিতে হয়। এইসব কারণে পশ্চিমবঙ্গের রাজ্য সরকার কৃষক বন্ধুদের জন্য চালু করেছেন একটি প্রকল্প। এই প্রকল্পের দৌলতে পশ্চিমবঙ্গের কৃষকরা আর্থিক সহায়তা পাবেন।

Advertisement

পশ্চিমবঙ্গ সরকারের এই প্রকল্পটি হল ‘কৃষক বন্ধু’ প্রকল্প। চলতি বছরে খারিফ শস্যের কিস্তি অর্থাৎ বর্ষাকালীন ফসলের জন্য কৃষক বন্ধুর (Krishak Bondhu Payment) টাকা এপ্রিল মাসেই রাজ্যের প্রতিটি কৃষকদের ব্যংকে দেওয়া হয়ে গিয়েছে। এই প্রকল্পের টাকা ৬ মাস অন্তর অন্তর কৃষকদের দেওয়া হয়ে থাকে। এরপর আপনারা কি জানেন এই প্রকল্পের শীতকালীন কিস্তি কবে ঢুকবে? এই প্রকল্পের আওতায় কত টাকা করে পেয়ে থাকেন কৃষকরা? এই সব প্রশ্নের উত্তর পেয়ে যাবেন আজকের প্রতিবেদনে।

Advertisement

ATM থেকে টাকা তুলতে প্রয়োজন হবে না ডেবিট কার্ডের, হাতে থাকা স্মার্টফোনেই হবে লেনদেন। RBI এর বড় ঘোষণা।

পশ্চিমবঙ্গের প্রায় ৭৭ লক্ষ ৮৮ হাজার ৯৯৮ জন কৃষক এই মুহূর্তে কৃষি বন্ধু (Krishak Bondhu Payment) প্রকল্পের আওতায় রয়েছেন। আপনারা চাইলে নতুন করে আবেদন করতে পারবেন। এই প্রকল্পের আওতায় কৃষক বন্ধুরা নিজেদের ব্যাংক একাউন্টে সরাসরি টাকা পেয়ে যান। খারিফ শস্যের কিস্তি অর্থাৎ বর্ষাকালীন ফসলের জন্য কৃষক বন্ধুর টাকা এপ্রিল মাসেই দেওয়া হয়ে গিয়েছে।

জানা যাচ্ছে, পশ্চিমবঙ্গ সরকারের কৃষি বিভাগ রবি শস্যের চাষের কিস্তি অর্থাৎ শীতকালীন কিস্তি চলতি বছরের সেপ্টেম্বর থেকে দেওয়া শুরু করবে। একাউন্টে টাকা ঢুকলেই স্ট্যটাস জানতে পেরে যাবেন‌। এখনও পর্যন্ত কৃষি বন্ধু প্রকল্পের টাকা একাউন্টে না ঢোকার জন্য যারা চিন্তা করছিলেন, তারা এবার নিশ্চিন্ত হয়ে যান। খুব দ্রুত আপনারা রবি কিস্তির টাকা পেয়ে যাবেন।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, কৃষি বন্ধু প্রকল্পের বর্ষাকালীন কিস্তির জন্য পশ্চিমবঙ্গ সরকার এবার মোট ২ হাজার ৩৮৫ টাকা কৃষক বন্ধুদের ব্যাংক একাউন্টে (Krishak Bondhu Payment) পাঠিয়েছে। এই প্রকল্পের কিস্তির টাকা ৬ মাস অন্তর অন্তর কৃষক বন্ধুদের ব্যাংক একাউন্টে পাঠানো হয়। খারিফ মরশুম আর রবি মরশুমে এই প্রকল্পের টাকা দেওয়া হয়ে থাকে। পশ্চিমবঙ্গ সরকার প্রতিবছর এই দুই কিস্তিতে মোট ১০ হাজার টাকা করে কৃষক বন্ধুদের দিয়ে থাকে।

কিভাবে জানবেন কৃষক বন্ধু প্রকল্পের টাকা ব্যাংক একাউন্টে ঢুকেছে?
এর জন্য আপনাদের ব্যাংকে গিয়ে চেক করতে হবে। তবে আপনাদের ব্যাংক অ্যাকাউন্টের সাথে যদি মোবাইল নম্বর লিঙ্ক করা থাকে সে ক্ষেত্রে আপনারা মেসেজ পেয়ে যাবেন। এছাড়াও আপনারা যদি অনলাইনে চেক করতে চান, সেক্ষেত্রে krishakbandhu.net ওয়েবসাইট থেকে দেখে নিতে পারেন‌।

অনলাইনে কৃষক বন্ধু স্ট্যাটাস চেক করার পদ্ধতি
1)অনলাইনে কৃষক বন্ধু স্ট্যাটাস চেক করার জন্য প্রথমে www.krishakbandhu.net এই ওয়েবসাইটে যেতে হবে।
2) এরপর “নথিভুক্ত কৃষকের তথ্য” অপশনটিতে ক্লিক করুন।
3) এরপর আপনার সামনে একটি নতুন পেজ ওপেন হবে যেখানে আপনার ভোটের কার্ডের নং টি লেখার জায়গা থাকবে, সেখানে সঠিক ভাবে আপনি আপনার ভোটের কার্ডের নং টি লিখুন।
4) তারপর “i’m not a robot” অপশনটিতে ক্লিক করতে হবে।
5) সর্বশেষে “Search” অপশনটিতে ক্লিক করলেই আপনার কৃষকবন্ধুর স্ট্যাটাস চলে আসবে।

একদম বিনামূল্যে 4G স্মার্টফোন ফ্রি দিচ্ছে রিলায়েন্স জিও. Redmi, Realme, OnePlus যা চাইবেন পাবেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button