LIC এর বাম্পার পলিসি, মাত্র ২ হাজার টাকা জমা করে পেয়ে যান ৪৮ লক্ষ টাকা।

LIC এর এই পলিসি সম্পর্কে আপনি জানেন তো! না জানলে জানুন এক্ষুনি।

LIC অর্থাৎ (LIFE INSURANCE CORPORATION OF INDIA) নিয়ে এসেছে এক দারুণ সুযোগ। মাসে জমা দিন মাত্র ২ হাজার টাকা করে আর পেয়ে যান ৪৮ লক্ষ টাকা। কিভাবে যেনে নেওয়া যাক। জীবনে শুধু আয় করলেই হবে না। সবচেয়ে জরুরী বিষয় হল সঞ্চয় করা। কারণ বৃদ্ধ বয়সে যখন প্রতিমাসে আর রোজগার করার ক্ষমতা থাকে না তখন প্রথম জীবনের সঞ্চয়ই মানুষের কাজে আসে। তাই আমাদের সকলকেই কম-বেশী সঞ্চয়ে উদ্যোগী হতে হবে।

Advertisement

এই উদ্যোগে সহযোগিতা করতে এগিয়ে এসেছে LIC তাদের নানা বীমা পলিসির মাধ্যমে। আমরা আমাদের এই আলোচনায় যেই পলিসির বিষয়ে আলোচনা করতে চলেছি সেইখানে মাসে ৫০০ টাকা বা দৈনিক ৭৪ টাকা করে সর্বনিম্ন বিনিয়োগের মাধ্যমে নিজের ভবিষ্যৎ সুরক্ষিত করার যাত্রা শুরু করতে পারবেন। LIC র এই দারুণ বীমা পলিসির মাধ্যমে।

Advertisement

সমাজে বিভিন্ন ধরণের আয়ের নাগরিকদের জন্য LIC র তরফ থেকে নানা ধরণের পলিসি আছে। এই বীমা পলিসি হল নিজস্ব জীবন নিশ্চিতকারী পরিকল্পনা। এই প্রকল্পের শেষে যিনি এই পলিসির প্রাপক তিনি একটা মোটা অঙ্কের টাকা LIC র তরফ থেকে ফেরত পাবেন এবং কোন কারণ বশত যদি বর্তমান পলিসি হোল্ডারের অনাবশ্যক মৃত্যু ঘটে সেই সময় তার পরিবারের কোন এক সদস্য এই সমপরিমাণ টাকা ফেরত পেয়ে যাবেন। এর ফলে শুধু পলিসি হোল্ডারই জীবন কালে না জীবনের পরেও তার পরিবারের আর্থিক সুরক্ষার সুযোগ এনে দিতে পারেন এই পরিকল্পনার মাধ্যমে।

দেখে নেওয়া যাক জরুরী নিয়মগুলী কি কি :
৮ বছর থেকে ৭৫ বছর বয়স পর্যন্ত যে কেউ এই পলিসি করতে পারে। এই পলিসির সর্বনিম্ন সময়কাল ১২ বছর থেকে সর্বোচ্চ ৩৫ বছর অব্দি। ১৫ বছরের জন্য বার্ষিক প্রিমিয়াম ৬,৯৭৮। ২৫ বছরের জন্য এই রাশি ৩,৯৩০ টাকা এবং ৩৫ বছরের জন্য হল ২,৭৫৪ টাকা। এই সব নিয়ম লাগু হওয়ার জন্য প্রয়োজন ২০ বছর বয়সে ১ লক্ষ টাকার বেশী পরিমাণ প্রিমিয়াম পেয়ে থাকা। এই নিয়মগুলী LIC (LIFE INSURANCE CORPORATION OF INDIA) র তরফ থেকে ঘোষণা করা হয়েছে।

প্রকাশিত হল প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনার নতুন তালিকা! কে কে টাকা পেলেন?

আপনার সন্তানের বয়স যদি ৮-৯ বছরের মধ্যে হয় তাহলে তার নামে আপনারা এই কভারেজ করাতে পারেন। যদি তার বয়স ৮ বছরের কম হয়। তাহলে এই কভারেজ আপনারা নিজেদের নামে চালু করতে পারেন। এবং নিজের ও নিজের পরিবারের ভবিষ্যৎ সুরক্ষিত করতে পারেন LIC র হাত ধরে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button