Instant Personal Loan – প্রয়োজনে টাকা দিচ্ছে ভারতীয় ব্যাংক! এইভাবে আবেদন করলেই টাকা সবাই পাবে।

একজন ব্যক্তি যতই অর্থ আয় করুক না কেন কোনো আচমকা বিপদে অনেকসময় বিপুল পরিমাণ অর্থের বা লোনের তথা Instant Personal Loan প্রয়োজন হয়। আর এত পরিমাণ অর্থ তাৎক্ষণিক পেয়ে যাওয়া সম্ভব নয়। যদিও তার ব্যাংকে টাকা ফিক্সড থাকে তবুও সেটাও মেয়াদের আগে তোলা সম্ভব নয়। তাই তখন সবচেয়ে যে পদ্ধতিতে আপনি ইনস্ট্যান্ট টাকা পাবেন তার একমাত্র উপায় লোন নেওয়া।

Advertisement

Instant Personal Loan V/S Creadit Loan

  • লোন ডিটেলস
  • পার্সোনাল লোন V/S ক্রেডিট কার্ড লোন
  • সুদের হার
  • আবেদন পদ্ধতি

লোন ডিটেলস

আর বর্তমানে প্রত্যেকটি ব্যাংক Instant Personal Loan বা ইন্সট্যান্ট পার্সোনাল লোন নেওয়ার সুযোগ করে দিয়েছে। তাও খুব স্বল্প সুদে। মাত্র ৫ মিনিটেই আপনি অনলাইনের মাধ্যমে আবেদন করে পেয়ে যেতে পারেন এই লোন। ব্যাংকের লোন সাধারণত নেওয়া যায় দুইভাবে। একটি আপনি সরাসরি লোনের জন্য আবেদন করতে পারেন।

Advertisement

যেটিকে বলা হয় ইনস্ট্যান্ট পার্সোনাল লোন বা Instant Personal Loan আরেকটি আছে পরোক্ষভাবে লোন নেওয়া অর্থাৎ ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে। এই দুটি ভাবেই অনেকেই লোন নিয়ে থাকেন। তবে কোনটি বেশি গ্রহণযোগ্য? কোনটিতে বেশি লাভ হবে? জেনে নেওয়া যাক।

পার্সোনাল লোন V/S ক্রেডিট কার্ড লোন

১) Instant Personal Loan বা ইন্সট্যান্ট পার্সোনাল লোন নেওয়া যায় যে কোনো ব্যক্তিগত কারণে জন্য। যেমন – বাড়ি তৈরি, গাড়ি কেনা, চিকিৎসার জন্য, বিয়ের জন্য, পড়াশুনার জন্য ইত্যাদি। যে কারণে লোন নেবেন সেই পারপাস আপনাকে উল্লেখ করতে হবে পার্সোনাল লোনের ক্ষেত্রে। অন্যদিকে ক্রেডিট কার্ড লোন নেওয়ার জন্য কোনো কারণ উল্লেখ করতে হয়না।

২) Instant Personal Loan বা ইন্সট্যান্ট পার্সোনাল লোন নিতে হলে টাকার অ্যামাউন্ট ফিক্সড করা থাকেনা। আপনি আপনার প্রয়োজন মতন টাকা লোন নিতে পারেন। যেমন ২ লক্ষ, ৩ লক্ষ, ৫ লক্ষ এমন কি ১০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত পার্সোনাল লোন দেয় ব্যাংক।

ক্রেডিট কার্ডে তেমনটা হবেনা। এতে যেহেতু আগে থেকেই একটা টাকার লিমিট সেট করা থাকে তার বেশি টাকা আপনি ধার নিতে পারেন না। এছাড়াও আপনার ক্রেডিট স্কোরের ওপরেও লোনের পরিমাণ নির্ভর করছে।

৩) Instant Personal Loan বা ইন্সট্যান্ট পার্সোনাল লোন আপনার লোন নেওয়া অর্থের ওপর নির্ভর করে স্বল্প, মাঝারি এবং ৫ বছরের দীর্ঘ মেয়াদি কিস্তিতে আপনি টাকা পরিশোধ করতে পারবেন। যেটা মধ্যবিত্তদের পক্ষে অনেকটাই উপকারী পন্থা। ক্রেডিট কার্ড লোন আপনাকে সর্বোচ্চ ৪৫ দিনের মেয়াদে শোধ করে ফেলতে হবে। আর এইসব কারণের জন্য বেশিরভাগ মানুষ পার্সোনাল লোন নিতে বেশি পছন্দ করেন।

৪) তবে Instant Personal Loan বা ইন্সট্যান্ট পার্সোনাল লোন পেতে গেলে প্রথমে ব্যাংকের কাছে আপনাকে নিজের একটি সম্পত্তি বন্ধক রাখতে হবে। যদি আপনি লোন শোধ করতে না পারেন, সেই জিনিস বাজেয়াপ্ত করে নেয় ব্যাংক। ক্রেডিট কার্ডে প্রি অ্যাপ্রুভড অ্যামাউন্ট থাকার কারণে ধার নেওয়ার জন্য কোনো সম্পত্তি বন্ধক রাখার প্রয়োজন পড়ে না।

স্টেট ব্যাংকে 31st মার্চের মধ্যে বিনিয়োগ করলেই পাবেন অতিরিক্ত লাভযুক্ত রিটার্ন।

সুদের হার

পার্সোনাল লোনের ক্ষেত্রে ১১ থেকে ১৮ শতাংশ বার্ষিক হারে সুদ কাটা হয়। কিন্তু ক্রেডিট কার্ড লোনের ক্ষেত্রে সুদের হার অনেক বেশি। বেশিরভাগ ব্যাংকেই বার্ষিক ৩৫ থেকে ৪০ শতাংশ হারে সুদ নেওয়া হয়।

আবেদন পদ্ধতি

Instant Personal Loan বা ইন্সট্যান্ট পার্সোনাল লোন নেওয়ার জন্য যে ব্যাংক থেকে নেবেন আপনি লোন সেই ব্যাংকে আপনার একাউন্ট থাকতে হবে। প্রথমেই আপনাকে কিছু নথি দেখাতে হবে এরপর ফ্রম নিয়ে সেটা সঠিক ভাবে পূরণ করে। নথি জমা করে দিতে হবে। ব্যাংক থেকে সেগুলো সম্পূর্ণ যাচাইকরণ হবে তারপর আপনার লোন স্যাংশন হবে।

SBI FD Interest Rate - স্টেট ব্যাংকের এফডি সুদের হার

এরজন্য একটা প্রসেস দরকার। এছাড়া আপনার ভালো ক্রেডিট স্কোর থাকা দরকার। ব্যাংক পার্সোনাল লোন দেওয়ার আগে অনেক কিছু যাচাইকরণ করবে। অন্যদিকে ক্রেডিট কার্ড লোনের ক্ষেত্রে আবেদন প্রক্রিয়া নেই। যে কোনো বিপদে যখন টাকার দরকার তখনই আপনি ক্রেডিট কার্ড থেকে টাকা কাটাতে পারেন।

আপনার এক ব্যাংকের ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে আপনি অন্য ব্যাংক থেকে টাকা কাটাতে পারবেন তারজন্য সেই ব্যাংকের গ্রাহক না হলেও চলবে। দুটি ব্যাংকের বিষয়ে পর্যালোচনা করলে বেশিরভাগ মানুষের কাছে নিরাপদ, সহজ ও সুবিধাজনক লোন হলো পার্সোনাল লোন। তাই এই লোনের প্রতি মানুষের আগ্রহ বেশি।

ক্রেডিট কার্ড ও পার্সোনাল লোন গ্রাহকদের বিরাট সুখবর। টাকার দরকার হলে এইভাবে আবেদন করুন।

এই লোন এর ক্ষেত্রে অর্থের পরিমাণ যেমন বেশি তেমন সুদের পরিমাণ কম তেমনি মেয়াদ অনেকটাই পাওয়া যায় পরিশোধের জন্য। তবে লোন নেওয়ার আগে ব্যাংকের সাথে ভালো করে কথা বলে নেওয়াটা জরুরি। সব জেনে শুনে বুঝে নিজ দায়িত্বে লোন নিন। এমন আরও গুরুত্বপূর্ণ খবরের আপডেট পেতে এই পেজ ফলো করুন।
Written by Shampa Debnath.

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button