Gold Price – সোনার দামে ভারী পতন, এই বছরে প্রথমবার এতোটা নামলো সোনার দাম।

Gold Price – জলের দামে পেয়ে যাবেন সোনা, তাহলে আর দেরি কেন? কম থাকতেই কিনে রাখুন।

মেয়েদের সোনার (Gold Price) অলংকার যেন তাদের রূপকে আরও ফুটিয়ে তোলে। আর কোনো পূজা পার্বণ অনুষ্ঠানে সাবেকি সোনার গয়নায় না সাজলে সাজটা যেন সেই অনুষ্ঠানের সাথে বেমানান হয়ে যায়। আর সামনেই দূর্গাপূজা। অষ্টমীর সকালের অঞ্জলী হোক আর দশমী বরণ সোনার সাজে আর্টপৌরে শাড়িতে না সাজলে কি আর মোহময়ী লাগে। তাইতো বরাবরই পূজার এক দুটি দিন সাবেকি সোনার গয়নায় সাজটা আজও একই রয়ে গেলো মেয়েদের মনে।

Advertisement

আর সোনার (Gold Price) সাজে সাজতে মন চাইলেও সবসময় নতুন ডিজাইনের সোনার গয়না কিনে ওঠা সম্ভব হয়ে ওঠেনা। কারণ সোনার দাম আকাশ ছোঁয়া। কিন্ত বর্তমানে সোনার দাম অনেকটাই কমেছে। আর এই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে এখনি সোনার দোকানে চলে যান। আর নিয়ে আসুন পছন্দসই গয়না।

Advertisement

বাড়ানো হলো প্রাইমারি টেট পরীক্ষার আবেদনের সময়সীমা, জানুন লাস্ট ডেট কবে?

সেনকো গোল্ড অ্যান্ড ডায়মন্ড এর কর্ণধার শুভঙ্কর সেন বলছেন গত ৬ মাসের মধ্যে এখন সোনার দাম সবচেয়ে কম। আর এই সুযোগের সদ্ব্যবহার করাটাই উচিত। এতদিন প্রতি ১০ গ্রাম সোনার মূল্য (Gold Price) ছিল ৬০ হাজার টাকা। এখন সেটা দাড়িয়েছে ৫৮ হাজার টাকায়। তাই আসন্ন দুর্গাপূজার আগেই অনেকের সোনার গয়না কেনার ঝোঁক বেড়েছে। অনেক সোনার দোকানে ইতিমধ্যে লাইন পরে গেছে। পিসি চন্দ্র জুয়েলার্স ও তানিস্ক এর মতন বড়ো বড়ো সোনার দোকানে অনলাইন সোনা কেনার অপশন রেখেছেন।

বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল রিজার্ভ ব্যাংক সুদের হার ক্রমবর্ধমান করে চলেছে। এর ফলস্বরূপ বাজারে এর প্রভাব পড়বে। বিশেষত শেয়ার মার্কেটে এটি বড়সড় ধাক্কা দিতে পারে। কারণ ফেডারেল ব্যাংক যদি সুদের হার বৃদ্ধি করে তাহলে বিভিন্ন দেশ তথা আমাদের দেশেও রিসার্ভ ব্যাংকের সুদের হারে বৃদ্ধি ঘটবে। ফলে চড়া হবে শেয়ার মার্কেটে সুদের হার।

বিনিয়োগকারীরা তাদের অংশ থেকে ক্রমশ লগ্নি তুলে নিতে শুরু করবেন। ফলে চাহিদা পড়ে যাবে শেয়ার মার্কেটে যা বাড়িয়ে দেবে স্বর্ণ বাজারে মানুষের চাহিদাকে। ঠিক এমনটাই ঘটছে এখন। এমন পরিস্থিতিতে দেশের শেয়ারবাজার থেকে বিদেশি প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীরা ক্রমাগত লগ্নি তুলে নিতে থাকলে বিকল্প হিসাবে সোনার চাহিদা বাড়বে। সোনার দাম ছ’মাসের সর্বনিম্ন স্তরে নেমে গিয়েছে।

আগামীদিনে ফেডারেল রিজার্ভ ব্যাঙ্কের এহেন কার্যকলাপের জন্য শেয়ার মার্কেটে খুব খারাপ প্রভাব হবে। ফলে সোনার দাম কমার আশঙ্কা তো রয়েছেই। গত অর্অক্টোবর থেকে ডিসেম্বর মাস পর্যন্ত আন্তর্জাতিক বাজারে মোট ৩৪৫ টন সোনা বিক্রি হয়েছিল। সেই অনুযায়ী বিশেষজ্ঞদের অনুমান চলতি অর্থবছরের জানুয়ারি থেকে মার্চ মাস পর্যন্ত ত্রৈমাসিক ভিত্তিতে সোনার বিক্রি ক্রমবর্মানভাবে বাড়বে।
Written by Shampa Debnath

পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারি কর্মীরা এই কাজ না করলে বন্ধ সরকারি সার্ভিস। রাজ্য সরকারের কড়া নির্দেশিকা জারি।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button