Indian Railways – দূরপাল্লার ট্রেনে বিনামূল্যে খাবার সুবিধা দিচ্ছে ভারতীয় রেল, কোন কোন ট্রেনে মিলবে এই সুবিধা?

Indian Railways To Give Free Food For Passengers.

মানুষ ভ্রমণ পিপাসু মানুষ। আর দূরে ঘুরতে যাওয়ার জন্য ভরসা করতেই হয় দূরপাল্লার ট্রেনের (Indian Railways) জন্য। দূরপাল্লার ট্রেনের জন্য যেমন কয়েক মাস আগে থেকেই টিকিট কাটতে হয়। তেমনি দূরপাল্লার ট্রেনে যেতে গেলে হয় খাবার নিয়ে যেতে হয় বাড়ির থেকে নয় ট্রেন কিংবা বাইরে থেকে কিনে নিয়ে যেতে হয়। আবার গন্তব্য স্থলে পৌঁছাতে দু তিন দিন লেগে যায় দেখে ট্রেনেই খাবারের বন্দোবস্ত থাকে। তবে ট্রেন থেকে খাবার কিনতে গেলে অনেক টাকা খরচ পড়ে যায়।

Advertisement

তাই বেশিরভাগ লোকই হয় বাইরে থেকে নয় বাড়ি থেকে খাবার কেনে। কিন্ত এবার থেকে আর টাকা দিয়ে খাবার কিনতে হবে না। ট্রেন (Indian Railways) থেকেই বিনামূল্যে খাবার পেয়ে যাবেন। কিন্ত কিভাবে ভাবছেন তাইতো? আর এই ফ্রি খাবারের মধ্যে থাকছে দুপুরের খাবার, বিকেলের স্ন্যাক্স বা নৈশভোজ। পাশাপাশি যাত্রীরা নিজেরাই পছন্দ মত আমিষ, নিরামিষও বেছে নিতে পারেন।

Advertisement

জানা যাচ্ছে, কিছু প্রিমিয়াম ট্রেনে এই ফ্রি খাবারের সুবিধা পাওয়া যাবে। সমস্ত ট্রেন (Indian Railways) বা সমস্ত পরিস্থিতিতে কিন্তু এই সুবিধা উপলব্ধ নয়। আপাতত দূরন্ত, রাজধানী, শতাব্দির মত প্রিমিয়াম ট্রেনগুলিতে উপলব্ধ রয়েছে এই বিশেষ পরিষেবা। ভারতীয় রেলের তরফে বলা হয়েছে কিছু বিশেষ পরিস্থিতিতে যাত্রীদের বিনামূল্যে খাবার দেওয়ার কথা ঘোষণা করা হয়েছে।

Swasthya Sathi(স্বাস্থ্য সাথী)

রেল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, কিছু প্রিমিয়াম ট্রেনে বিনামূল্যে খাবার এবং পানীয় সরবরাহ করা হবে। এবং এই সুবিধা পাওয়া যাবে, ট্রেন যদি দুই ঘন্টারও বেশি দেরি করে তবেই। অনেকসময় দেখা যায়, কোনো কারণবশত ট্রেন লেট করে। এদিকে ট্রেন ধরার তাড়াহুড়োতে খাবার কিনে নিয়ে ওঠা হয়না। তখন যাত্রীদের সমস্যার মধ্যে পড়তে হয়। এইদিক বিবেচনা করে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

জানুয়ারী থেকে পশ্চিমবঙ্গের স্কুলে ভর্তির নতুন নিয়ম। শিক্ষা দপ্তরের বিজ্ঞপ্তি।

এছাড়া শীতকালের ঘন কুয়াশার জন্য ট্রেন আসতে লেট হয়। কিংবা ট্রেন লাইনের ট্রাকে কাজ চলার কারণে ট্রেন লেট করে স্টেশনে ঢোকে। সেক্ষেত্রে বেশ অসুবিধায় পড়েন যাত্রীরা। তাই এই বিশেষ নিয়মটি চালু করেছে ভারতীয় রেল কর্তৃপক্ষ। আর এই খবরে যাত্রীদের মনে অনেকটাই খুশিতে ভরে উঠেছে।
Written by Shampa Debnath.

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button