RBI – গাড়ি, বাড়ির ঋণের ক্ষেত্রে বিরাট বড় সুখবর শোনালো আরবিআই, আগে কখনও এমনটা হয় নি।

RBI – লোন নিতে চাইলে সুখবর রয়েছে, ছাড় পাবেন কোথায়, দেখুন।

লোন নেওয়ার প্রয়োজন হলেও সহজে ব্যাংক (RBI) থেকে তা মেলে না। সাধারণভাবে ব্যাংকের কাছে লোনের জন্য আবেদন করতে গেলেই এক লম্বা ফিরিস্তি সামনে তুলে ধরা হয়। বিভিন্ন ধরনের হিসাব-নিকাশ, অজুহাত এমনভাবে ব্যাংকের তরফে খাড়া করা হয়েছে, সাধারন মানুষ আর লোন নিতে সমর্থ্য হন না। অথচ নীরব মোদী, মেহুল চোক্সি, বিজয় মালিয়ার মত জালিয়াতরা ব্যাংক থেকে হাজার হাজার কোটি কোটি টাকার লোন নিয়ে বিদেশে চম্পট হয়ে যাচ্ছে। আর এরা ব্যাংকের কাছে লোন চাইলে সহজে পেয়েও যায়। সে যাই হোক, বর্তমান পরিস্থিতিতে সাধারণ মানুষ লোন নিতে চাইলে কিছুটা হলেও একটু আশার খবর রয়েছে।

Advertisement

সাম্প্রতিক সময়ে রিজার্ভ ব্যাংক অফ ইন্ডিয়ার তরফে দ্বীমাসিক নীতি পর্যালোচনার সময় তৃতীয়বারের জন্য সুদের হারের পরিবর্তন (RBI Interest Rate Not Changed) করা হয়নি। ফলে গত বছরের মে মাস থেকে সুদের হার যেভাবে বৃদ্ধি হচ্ছিল, ফেব্রুয়ারি মাসের পর থেকে রেপো রেট 6.5 শতাংশই রয়ে গিয়েছে। আর রেপো রেট বৃদ্ধি হয়নি। অভ্যন্তরীণ মুদ্রাস্ফীতি এক জায়গাতেই রয়েছে বলে জানানো হয়েছে। আর এই সময়ে Home Loan,Car Loan বা Personal Loan নেওয়ার ইচ্ছে থাকলে যাদের প্রয়োজন তারা নিতে পারেন। সেন্ট্রাল ফেডারেল রিজার্ভ এবং ইউরোপিয়ান সেন্ট্রাল ব্যাংকের মূল হার বৃদ্ধি পেলেও অভ্যন্তরীণ মুদ্রাস্ফীতির নির্ণায়ক একই জায়গায় রয়েছে।

Advertisement

BSNL এর ধামাকা অফার! 200 টাকারও কমে পেয়ে যান রোজ 3 জিবি ডেটা সহ আনলিমিটেড কলের সুবিধা।

এই প্রসঙ্গে ব্যাঙ্ক অফ বরোদার চিফ ইকোনমিস্ট বলেন, অভ্যন্তরীণ মুদ্রাস্ফীতি 5% এর মধ্যেই রয়েছে। ফলে আশা করা যায় আর বি আই এই পরিস্থিতির স্থিতাবস্থা বজায় রাখবে। কোটাক মাহিন্দ্রা ব্যাংকের ইকোনমিস্ট উপাসনা ভরদ্বাজ বলেন, ২০০০ টাকার নোট তুলে নেওয়ার ফলে পরিস্থিতি অনুকূল রয়েছে। RBI- এর তরফে এই বর্তমান পরিস্থিতি বজায় রাখা হবে বলেই মনে করা হচ্ছে। তবে অভ্যন্তরীণ মুদ্রাস্ফীতির প্রবণতা বজায় রাখার উপরে নজর থাকবে।

আই সি আর এর অর্থনীতিবিদ অদিতি নায়ার বলেন, সবজির দাম বাড়ার কারণে ২০২৩ সালের জুলাইয়ের মধ্যে CPI 6 শতাংশের উপরে উঠে যেতে পারে। RBI- এর দ্বীমাসিক পর্যালোচনা নীতিতে তৃতীয়বারের জন্য সুদের হার বৃদ্ধি না হলেও ৮ থেকে ১০ ই আগস্ট আরবিআই গভর্নরের নেতৃত্বে আর্থিক নীতি কমিটি বা MPC বৈঠক করতে চলেছে।

রাজ্য সরকারি কর্মীদের জন্য বিরাট ঘোষণা করল রাজ‍্য সরকার, শিক্ষকরাও কি পাবেন?

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button