TET – পশ্চিমবঙ্গের শিক্ষক নিয়োগ ইস্যুতে ফের টাকা তোলা হচ্ছে, বিস্ফোরক অভিযোগ সামনে এলো।

TET – ঠিক কি অভিযোগ জানতে হলে পড়ুন বিস্তারিত।

একজন সিনিয়র আইনজীবীর নাম করে তোলা হচ্ছে টাকা! চাকরি প্রার্থীদের (TET) বিরুদ্ধে উঠছে অভিযোগ! দীর্ঘদিন ধরে চলে আসছে শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি মামলা। বর্তমানে মামলা চলছে কলকাতা হাইকোর্টে। কলকাতা হাইকোর্টের একজন সিনিয়র আইনজীবী হলেন বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্য। এবার তাঁর নাম করেই তোলা হচ্ছে টাকা। দীর্ঘদিন ধরে চলে আসছে শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি মামলা। এই সময়কালে বেশ কিছু ঐতিহাসিক রায় দিয়েছে কলকাতা হাইকোর্ট। এবার পোস্টিং দুর্নীতি মামলায় এসেছে নতুন দিক। সিবিআই -এর তরফ থেকে তলব করা হয়েছে ৫০ জন শিক্ষককে।

Advertisement

সূত্র থেকে জানা যাচ্ছে, ২০২০ সালে ১৬ হাজার ৫০০ জন শিক্ষকের নিয়োগে পোস্টিং (TET) দুর্নীতি হয়েছিল। তাঁদের মধ্যে থেকেই ৫০ জনকে ডেকে পাঠানো হয়েছে বলে প্রাথমিক ভাবে জানা যাচ্ছে। হুগলি জেলার মোট ৩০ জন আর অন্যান্য জেলা থেকে ২০ জনকে নিজাম প্যালেসে তলব করেছে সিবিআই। এই সম্পর্কে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে পশ্চিমবঙ্গ প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের প্রাক্তন চেয়ারম্যান মানিক বন্দ্যোপাধ্যায় -কেও।

Advertisement

বিদ্যুৎ এর বিল নিয়ে বড় আশার কথা শোনালেন মুখ্যমন্ত্রী, এবার থেকে হু হু করে কমবে বিদ্যুৎ বিল।

এখনও পর্যন্ত একাধিক ভুয়ো শিক্ষকের (TET) সন্ধান পেয়েছে কলকাতা হাইকোর্ট। আর এই ঘটনার সাথে যুক্ত রয়েছেন একাধিক নেতা মন্ত্রীও। ধীরে ধীরে সবকিছুই সামনে আসছে। বিচারপতি বিশ্বজিৎ বসুর এজলাসে একটি কমিটি গঠনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। তিনি নির্দেশ দিয়েছেন যত দ্রুত সম্ভব এই কমিটি গঠনের কাজ যেন শেষ হয়। এই কমিটির প্রধান কাজ হবে ভুয়ো শিক্ষকদের ব্যাপারে তল্লাশি করা আর শিক্ষক নিয়োগে যে সমস্ত অনিয়ম হয়েছে সেই সব খুঁজে বের করা। এই কমিটিতে স্কুল সার্ভিস কমিশনের সচিব, মধ্যশিক্ষা পর্ষদের সচিব ও শিক্ষা দপ্তরের আধিকারিক যুক্ত থাকবেন।

এবার জানা যাচ্ছে প্রাথমিকে যে সমস্ত প্রার্থীরা বঞ্চিত হয়েছেন তাঁরা কলকাতা হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চে CAN ফাইল করবেন। আর এই কারণেই তোলা হচ্ছে টাকা। তবে এক্ষেত্রে নাম নেওয়া হচ্ছে আইনজীবী বিকাশ রঞ্জন ভট্টাচার্যের। ফেসবুকে একটি পোস্ট ভীষণভাবে শেয়ার হচ্ছে। যেখানে বঞ্চিত চাকরি প্রার্থীরা লিখেছেন, “৭ বছর ধরে স্বপ্নের অপমৃত্যু থেকে অধিকার রক্ষার লড়াইয়ে শামিল হন।

জানেন কিভাবে আপনার হকের চাকরি (TET) খোয়া গেছে! একটা গোটা রাজ্যের শিক্ষা দপ্তর জেলে। ৭ বছর আগে যে প্রাথমিক শিক্ষকের চাকরি আপনার হতে পারত, তার দুর্নীতির কারণে আজও অধরা। … কিন্তু অর্থের কাছে সেই লড়াই আজ ব্যাগ ফুটে … সুপ্রিম কোর্টের আবর্তবর এডভোকেট শিক্ষকরা নিয়েছেন, আমরা সেখানে চেষ্টা করছি একটু ভালো এডভোকেট দেবার … তাই আপনারা নিজের হকের লড়াইয়ে নিজেকে শামিল করুন। লড়াইটা আইনি পথেই জিততে হবে।”

এর পাশাপাশি এই পোস্টটিতে ব্যবহার করা হয়েছে বিকাশ রঞ্জন ভট্টাচার্যের নাম। লেখা হয়েছে, “… ২০১৪ সালে টেস্ট পাশ হলেই সেখানে যুক্ত হতে পারবেন, ট্রেইন্ড, নন ট্রেইন্ড সবাই। আমাদের এডভোকেট সিনিয়র আইনজীবী বিকাশ রঞ্জন ভট্টাচার্য। বঞ্চিতদের কথা মাথায় রেখে একদম কম পয়সায় এই CAN টি হবে। …” এই পোস্ট সিনিয়র আইনজীবী বিকাশ রঞ্জন ভট্টাচার্যের সামনে আসতেই, স্পষ্ট করে জানিয়ে দিয়েছেন (TET) এর সাথে তিনি কোনোভাবেই যুক্ত নন। এটি কেবলমাত্র মিথ্যা প্রচার। এর পাশাপাশি তিনি বঞ্চিত চাকরি প্রার্থীদের অনুরোধ করেছেন এই প্রতারণার ফাঁদে পা না দিতে।

30000 টাকা বেতনে ডোনেশন ছাড়াই বন্ধন ব্যাংকে কর্মী নিয়োগ। পাবেন সরকারি চাকরির মতো সুবিধা।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button