E Mudra Loan – টাকার দরকারে আবেদন করলেই পাবেন লাখ টাকা। সহজে মুদ্রা লোন কিভাবে পাবেন?

কেন্দ্রীয় সরকারের বিভিন্ন প্রকল্পের মধ্যে মুদ্রা যোজনা (E Mudra Loan) খুবই উল্লেখ্যযোগ্য। এই প্রকল্প চালু করা হয় ২০১৮ সালের ১৫ এপ্রিল। এই প্রকল্প করার উদ্দেশ্য হলো দেশের বেকার যুবক যুবতীদের কর্মসংস্থান দেওয়ার জন্য। যাতে তারা ব্যাবসা করে নিজে স্বাবলম্বী করে তোলার জন্য। চাকরির জন্য ঘরে বসে না থেকে মুদ্রা যোজনায় নিজের নাম নথিভুক্ত করে অর্থ নিয়ে ব্যাবসা শুরু করে নিজের পায়ে দাড়ান।

Advertisement

Get Instant SBI E Mudra Loan Low Interest

লোকসভা নির্বাচন শুরু হওয়ার আগেই বিজেপির তরফ থেকে ইস্তেহার জারি করা হয়েছিল সেই লিস্টে বলা হয়েছিল মুদ্রা প্রকল্পের (E Mudra Loan) মাধ্যমে ২০ লক্ষ টাকা অব্দি ঋণ দেওয়ার প্রতিশ্রুতি করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। মুদ্রা প্রকল্প আপনিও আবেদন করতে চাইলে জেনে নিন আবেদন পদ্ধতি সহ আরও তথ্য।

Advertisement

একটি সমীক্ষার মাধ্যমে জানা গেছে, ভারতবর্ষে ক্ষুদ্র শিল্পের পরিমান প্রায় ৫ কোটি ৭৭ লক্ষ। আর এই ব্যবসার সাথে জড়িত রয়েছেন ১২ কোটিরও বেশি মানুষ। যে সমস্ত পরিবারের আর্থিক সচ্ছলতা রয়েছে তারা ছোটখাটো ব্যাবসা শুরু করার জন্য প্রয়োজনীয় মূলধন নিজেই জোগাড় (E Mudra Loan) করতে পারে।

কিন্ত যাদের আর্থিক সচ্ছলতা নেই তাদেরকে উৎসাহ দিতেই সরকারে এই মুদ্রা যোজনা প্রকল্প। প্রধানমন্ত্রী মুদ্রা যোজনার মাধ্যমে ঋণ নিতে গেলে কিছু শর্ত মেনে চলতে হয়।

  • লোনের শর্ত
  • লোন দেওয়ার পদ্ধতি
  • বয়সসীমা
  • প্রয়োজনীয় নথি

লোনের শর্ত

  • ব্যক্তিগত প্রয়োজনে লোন দেওয়া হবেনা। ব্যবসায়িক কাজে লোন দেওয়া হবেনা। এই লোন নিলে ব্যবসা করতে হবে।
  • কোন ব্যক্তি নিজের ব্যক্তিগত প্রয়োজনের জন্য এই ঋণ গ্রহণ করতে পারবেন না। কোন ব্যক্তি ঋণ গ্রহণ করলে ব্যাবসার জন্য খরচ করতে হবে।
  • কিশোর ও তরুণ বিভাগের অন্তর্ভুক্ত ঋণ গ্রহিতাদের নিজেদের ব্যক্তিগত এবং ব্যবসায়িক ব্যাংক স্টেটমেন্ট জমা দিতে হবে ব্যাংকে।
  • অন্তত এক বছরের আর্থিক লেনদেনের অর্থাৎ আয়-ব্যয় – সঞ্চয় ইত্যাদির যাবতীয় তথ্য ব্যাংক এ জমা দিতে হবে।
  • যদি কোন গ্রাহক পূর্বে কোন লোন নিয়ে পরিশোধ করতে অক্ষম হয়ে থাকেন তাহলে তাকে ঋণ দেওয়া হবে না।

হঠাৎ টাকার দরকার! চিন্তা নেই। প্রয়োজনে টাকা দেবে এই 5 টি ভারতীয় ব্যাংক। গ্রাহকদের জন্য দুর্দান্ত স্কিম।

লোন দেওয়ার পদ্ধতি

এই E Mudra Loan বা ই মুদ্রা লোন তিনটি পর্যায়ে বা করে দেওয়া হয়। শিশু, কিশোর এবং তরুণ বিভাগ। শিশু বিভাগে ৫০ হাজার টাকা অব্দি ঋণ দেওয়া হয়। কিশোর বিভাগে ৫০ হাজার থেকে ৫ লক্ষ টাকা অব্দি লোন নিতে পারবেন কোন ব্যক্তি। তরুনরা ১০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত ঋণ পেতে পারেন। তবে লোকসভা ভোটের আগেই ঘোষণা করা হয় এই ঋণের পরিমাণ বাড়িয়ে ২০ লক্ষ টাকা অব্দি করা হয়।

বয়সসীমা

প্রধানমন্ত্রী মুদ্রা যোজনার অন্তর্গত এই E Mudra Loan বা ই মুদ্রা লোন পেতে হলে আপনাকে ১৮ বছর থেকে ৬৫ বছর বয়সের মধ্যে হতে হবে। এই বয়সসীমার কম বা বেশি হলে আবেদন করা যাবে না।

E Mudra Loan - ই মুদ্রা লোন

প্রয়োজনীয় নথি

  • আবেদনকারীর পরিচয় পত্র,
  • স্থায়ী বাসস্থানের প্রমাণ পত্র,
  • আয় ব্যয়ের হিসাব,
  • ইনকাম ট্যাক্স সংক্রান্ত নথিপত্র,
  • ব্যাংকিং ডিটেলস.
  • ব্যাবসার শুরুর কাগজ

নতুন বাড়ি বানাতে টাকা দিচ্ছে সরকার। আবাস যোজনার লিস্টে নাম থাকলেই পাবেন।

আপনিও যদি বেকার হয়ে ঘরে বসে থাকেন। কি ভাবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করবেন ভাবছেন তাহলে সময় নস্ট না করে প্রধানমন্ত্রী মুদ্রা যোজনা (E Mudra Loan) আবেদন করে লোন নিয়ে সেই টাকা দিয়ে ব্যাবসা শুরু করুন। কেউ যদি নিজের ব্যাবসা সম্প্রসারন করতে চায় তিনিও এই লোন নিতে পারেন।
Written by Shampa Debnath.

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button