Gram Suraksha Yojana – 50 টাকা জমা করে এককালীন 35 লাখ টাকা পেয়ে যান পোস্ট অফিসের স্পেশাল স্কিমে।

ভারতীয় পোস্ট অফিস বা ডাক বিভাগে (Indian Post Office) সবচেয়ে পুরোনো একটি সরকারি (Gram Suraksha Yojana) আর্থিক প্রতিষ্ঠান। যেখানে খুবই নির্ভরতার ও বিশ্বাসের সাথে আপনি টাকা বিনিয়োগ করতে পারেন। বর্তমানে বিভিন্ন ব্যাংকের থেকেও অনেক বেশি সুদ দিচ্ছে এই পোস্ট অফিস। নিত্য নতুন স্কিম চালু করছে এই পোস্ট অফিস। এছাড়া পোস্ট অফিসে একজন শিশু থেকে শুরু করে বয়স্ক সবার জন্য স্কিম রয়েছে।

Advertisement

Indian Post Office Scheme for Gram Suraksha Yojana

আজকের প্রতিবেদনে এমনই একটি স্কিম নিয়ে আলোচ্য বিষয় যেখানে আপনি ৫০ টাকা করে জমিয়ে এককালীন ৩৫ লাখ টাকা পেয়ে যেতে পারেন। এমন লাভজনক রিটার্ন আর কোথায় পাবেন? আপনার যদি পোস্ট অফিসে একাউন্ট থেকে থাকে আর আপনি যদি এই দেশের বাসন্দা হন তাহলে এই সুযোগ আপনার জন্যই। জেনে নেওয়া যাক এই স্কিম সমন্ধে আরও বিস্তারিত।

Advertisement

প্রত্যেকটি ব্যক্তি নিজের উপার্জন করা অর্থের কিছুটা অংশ ভবিষ্যতের জন্য সঞ্চয় করেন। কারন বিনিয়োগ করা অর্থের ওপর সুদের অংক যুক্ত হয়ে মেয়াদ পূর্ণ হলে টাকা দ্বিগুণ হয় তাই। তবে মেয়াদের পরিবর্তী টাকার অংক কত গুন হবে সেটা নির্ভর করে সুদের পরিমাণের ওপর। তাই আপনি যদি সঠিক জায়গায় বিনিয়োগ (Gram Suraksha Yojana) না করেন তাহলে আপনার লাভজনক রিটার্ন নাও আসতে পারে।

এছাড়া বিনিয়োগ করা অর্থ সঠিক স্থানে সঞ্চয় করার একটা ব্যাপার আছে যেখানে বিশ্বস্ত ও নির্ভরযোগ্য হবে। বর্তমানে অনেকে রয়েছে যারা স্বল্প সঞ্চয়ের বিপুল রিটার্ন পেতে চায়, তাও আবার সরকারি সংস্থা থেকে। কেননা সরকারি সংস্থায় টাকা রাখলে সেই টাকার নির্ভরশীলতা বেশি থাকে (Gram Suraksha Yojana).

এবার আপনিও যদি এমন একটি স্কিম খুঁজে থাকেন, যার মাধ্যমে টাকা জমা রেখে এককালীন বহু রিটার্ন চান, তাহলে আপনার জন্য পোষ্ট অফিসের এই স্কিমটি (Gram Suraksha Yojana) লাভজনক হবে। পোস্ট অফিসের এই স্কিমের নাম হল গ্রাম সুরক্ষা যোজনা। মধ্যবিত্তের জন্য একটি খুব ভালো স্কিম। মধ্যবিত্ত ব্যক্তিদের একসাথে অনেক টাকা বিনিয়োগ করা সম্ভব হয়না। তাই অল্প অল্প করে বিনিয়োগ করে মোটা টাকা রিটার্ন পাওয়া খুবই ভালো ব্যাপার।

চাকরি না করেও প্রতিমাসে 20,500 টাকা পেনশন পান পোস্ট অফিসের এই স্কিমে বিনিয়োগ করে।

বয়স সীমা

এই Gram Suraksha Yojana বা গ্রাম সুরক্ষা স্কিমে আবেদন করার জন্য আপনার বয়স হতে হবে ১৯ বছর থেকে ৫৯ বছর বয়স পর্যন্ত। এক্ষেত্রে বার্ষিক বা ত্রৈমাসিক কিংবা মাসিক হিসেবে আপনি টাকা বিনিয়োগ করতে পারেন। এই স্কিমে আপনি বার্ষিক ১০ হাজার থেকে ১০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত বিনিয়োগ করতে পারেন।

পোস্ট অফিসের টাইম ডিপোজিট স্কিমে বা Post Office Time Deposit

বৃদ্ধা বয়সে এই স্কিম বিরাট উপকারী হয়ে থাকে। আপনি বিনিয়োগ করতে থাকলে যখন আপনার বয়স ৮০ বছর হবে তখন এই স্কিমের সুবিধা পাওয়া যাবে। যদি বিনিয়োগকারী ৮০ বছর বয়সের আগে মারা যায়, তাহলে তার উত্তরাধিকারীরা এই Gram Suraksha Yojana বা গ্রাম সুরক্ষা স্কিমের সুবিধা পাবেন।

ভারতীয় পোস্ট অফিসের Gram Suraksha Yojana বা গ্রাম সুরক্ষা যোজনা স্কিমে বিনিয়োগ যদি চার বছর ধরে করা হয়ে থাকে তাহলে আপনি ঋণের সুবিধাও পাবেন। যদি আপনার স্কিম এর বয়স পাঁচ বছর হয়ে থাকে, তাহলে বোনাসের দাবিও করা যাবে।

মেয়েদের জন্য দারুণ সুখবর। 18 বছর বয়স হলেই লাখ টাকা দেবে সরকার।

কিংবা যদি আপনার বিনিয়োগের বয়স তিন বছর পার হয়ে যায়, তাহলে সারেন্ডার করা যায়। তাই এত ভালো একটি লাভজনক স্কিমে বিনিয়োগ করা যেতেই পারে। আপনি যদি চিন্তা করে থাকেন এই স্কিমে বিনিয়োগ করবেন তাহলে নিকটস্থ পোস্ট অফিসে গিয়ে আধিকারিকদের সাথে কথা বলুন। এই স্কিম সমন্ধে আরও বিস্তারিত জানুন।
Written by Shampa Debnath.

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button