RBI Rules – জোর করে লোন বা কিস্তির টাকার জন্য চাপ দিতে পারবে না কোনও ব্যাংক, রাত বিরেতে ফোন করাও চলবে না।

আমরা সাধারণত টাকা পয়সা জমা রাখতে কিংবা টাকা ঋণ নিতে প্রথমে দারস্ত হই ব্যাংকের। এরপর সেখানে সুদের সাথে আসল দিয়ে আপনাকে ঋণ মুক্ত হতে হয়। বর্তমানে ইএমআই ব্যবস্থার জন্য আরও সক্রিয় হয়ে উঠেছে ব্যাংকগুলি। মাসে মাসে কিস্তিতে আপনি যেকোন বেশি মূল্যের জিনিস অর্থাৎ বাড়ি, বা গাড়ি ও EMI এর মাধ্যমে কিনতে পারেন।

Advertisement

RBI Rules – নতুন নিয়মে কি ব্যাঙ্কের পক্ষে নাকি বিপক্ষে?

এতে আপনাকে এক সাথে অনেকগুলি টাকা গেলও না আবার অল্প অল্প করে দিলে গ্রাহকের উপর চাপও পড়ে না। আমাদের দেশে এই EMI পদ্ধতি বেশ জনপ্রিয়। বর্তমানে একটি ফোন থেকে শুরু করে সমস্ত কিছুই আপনরা EMI তে কিনতে পারবেন। শুধু ইএমআই নয় ব্যাংক থেকে আপনি আপনার প্রয়োজনের টাকাও ঋণ নিতে পারেন।

এরকম বহু মানুষে আছে যারা পার্সোনাল লোন হোক বা ব্যবসার কাজে এই পদ্ধতি ব্যবহার করে থাকেন। তবে এই সব ছোট ছোট ব্যাংক গুলির মাথা হল RBI অর্থাৎ রিজার্ভ ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া। RBI Rules জারি করে এবং প্রত্যেকটি নিয়ম ছোট ছোট ব্যাংকগুলিকে মেনে চলতে হয়। এই আরবিআই প্রত্যেক বছরই নতুন নতুন নিয়ম জারি করে।

কিছু সময় তা ব্যাংকের লাভের পক্ষে আবার কিছু সময় থাকে তা গ্রাহকে লাভের পক্ষে। আপনারা অনেকেই জানেন যে ব্যাংকগুলি থেকে একবার ঋণ নিলে পরে সেই ঋণ কোন কারণে একমাস বা নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে না দিলে ব্যাংকের ভাড়া করা গুন্ডাটা বাড়িতে চলে এসে আপনাকে অপদস্ত করে। কিছু কিছু সময় এই অত্যাচার অতিরিক্ত মাত্রায় করে ফেলে ব্যাংকগুলি।

সেই অত্যাচারের মাত্রায় লাগাম টানতে RBI Rules বানিয়েছে। RBI Rules অনুযায়ী কোন গ্রাহক যদি একমাস বা কিছু সময় টাকা দিতে দেরি করে তবে তা জোরপূর্বক বা কোন ধমকি দিয়ে তার থেকে টাকা আদায় করা যাবেনা। শুধু তাই নয় বাস্তবে ব্যাংক গুলি ঋণগ্রহীতার গ্যারেন্টার কেও অত্যাচার করতে পিছপা হয় না।

RBI Rules এ এও জানানো হয়েছে ব্যাংকগুলি কোনভাবেই ঋণ গ্রহীতার আত্মীয়-স্বজন বা পরিচিত ব্যক্তিদেরকে কোনরকম হয়রানি করতে পারবে না। এই নিয়ম সমস্ত নন ব্যাংকিং সংস্থা, সমবায় ব্যাংকগুলির ক্ষেত্রেও প্রযোজ্য হবে। এছাড়াও তারা ঋণগ্রহীতাদের সোশ্যাল মিডিয়ায় কোন আপত্তিকর মেসেজ পাঠাতে পারবে না।

এ তো গেল শুধু ঋণের পর্ব এছাড়াও আমাদের কাছে অনেক রকমের ফোন আস্তে থাকে ব্যাংকের তরফে ক্রেডিট কার্ড নেওয়ার জন্য। এইরকম ফোন অনেক সময় যখন তখন আসে। এবং শুধু একবার না একাধিক বার আপনি বারণ করে দেওয়ার পরেও তারা ফোন করতে থাকে। হ্যাঁ, তবে একটা কথা ঠিক যে ব্যাংক গুলিকেও ব্যবসা করতে হয়।

বন্ধন ব্যাংকের Fixed Deposit এ সুদের হার বৃদ্ধি, এবার পাবেন 8% সুদ।

তাদেরকে এই কার্ডগুলোই বিক্রি করতে হয়। তা না হলে লাভ হয় না। সেই ক্ষেত্রে সমাধান বার করেছে আরবিআই। গ্রাহকদেরকে সকাল আটটার আগে এবং সন্ধ্যা সাতটার পরে আর ফোন করে বিরক্ত করা যাবে না। আজকে আমাদের সম্পূর্ণ পোস্ট টি ছিল আর বি আই এর নতুন রুল নিয়ে। তাহলে এই সম্পূর্ণ পোস্টটি পড়ে আপনার কি অভিমত এই বিষয়ে?

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button