Yuvashree Prakalpa – মুখ্যমন্ত্রীর এই প্রকল্পে প্রতি মাসে পাবেন 10 হাজার টাকা। আবেদন পদ্ধতি জেনে নিন।

রাজ্য সরকারের তরফ থেকে বিভিন্ন রকমের প্রকল্প (Yuvashree Prakalpa) করা হয় সাধারণ জনগণের জন্য। রাজ্য সরকারের সবচেয়ে বেশি নাম করেছে যে প্রকল্পগুলো তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো লক্ষ্মীর ভান্ডার, কন্যাশ্রী, রূপশ্রী, যুবশ্রী, বিধবা ও বার্ধক্য ভাতা। এই প্রকল্পগুলো থেকে বর্তমানে জনসাধারণ অনেকটাই আর্থিক অনুদান পাচ্ছেন। যে অর্থের মাধ্যমে তাদের সাধারণ জীবন যাপনে অনেকটাই সহায়তা হয়েছে। এবার আরেকটি নতুন প্রকল্প চালু করার কথা বললেন স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী। ইতিমধ্যে রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের জন্য 10 শতাংশ মহার্ঘ ভাতা বৃদ্ধি করেছেন মুখ্যমন্ত্রী।

Advertisement

WB Yuvashree Prakalpa 2024

অনেকদিনের প্রতীক্ষার অবাসান হয়েছে রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের তেমনি লক্ষ্মীর ভান্ডার, বিধবা ও বার্ধক্য ভাতার মাধ্যমে অনেকটাই আর্থিক অবলম্বনের জায়গা পাচ্ছেন বয়স্ক মহিলারা। প্রতি মাসের এই 500 বা 1000 টাকা করে যে সরকারি অনুদান পাচ্ছেন মহিলারা সেটা দিয়ে জমিয়ে কোনো ছোট খাটো ব্যাবসা করে নিতে পারতো। নিজেদের পায়ে দাঁড়ানোর জন্য কিংবা স্বনির্ভর হওয়ার একটি অভিনব প্রয়াস হলো এই লক্ষ্মীর ভান্ডার।

Advertisement

তেমনই যুবশ্রী প্রকল্প বা Yuvashree Prakalpa এর মাধ্যমে বেকার যুবক যুবতীদের মাস মাসে যে অর্থ প্রদান করা হয় সেটা দিয়ে তাদের নিজের পায়ে দাঁড়ানোর জন্য এই প্রকল্প অনেকটাই সাহায্য করছে। এত প্রকল্প থাকার পরেও মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় শিক্ষার্থীদের জন্য দুটি নতুন প্রকল্পের কথা জানিয়েছেন। যার দ্বারা শিক্ষার্থীরা বিনা খরচে প্রশিক্ষণ এবং ইন্টার্নশিপ করতে পারবেন।

প্রকল্পের নাম – যোগ্যশ্রী প্রকল্প। ধনধান্য প্রেক্ষাগৃহে যোগ্যশ্রী প্রকল্প তথা Yuvashree Prakalpa মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এই প্রকল্পের চালু করেন।
কাদের দেওয়া হবে এই প্রকল্প – এস সি, এস টি ক্যাটাগরির মেধাবী পড়ুয়াদের জন্য এই প্রকল্প চালু করা হয়েছে।

প্রকল্পের সুবিধা

এই Yuvashree Prakalpa এ আবেদনের মাধ্যমে আপনি জয়েন্ট এন্ট্রান্স, নিট পরীক্ষা থেকে শুরু করে নানা ধরনের প্রবেশিকা পরীক্ষার জন্য বিনা খরচে প্রশিক্ষণ নিতে পারবেন। এছাড়া সরকারি পরীক্ষার জন্য কোনো ফিস লাগবেনা। উক্ত প্রকল্প সম্পর্কে মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) বলেন, ‘প্রবেশিক্ষা পরীক্ষা বা প্রশিক্ষণ পেতে যাতে বাংলার ছেলে মেয়েদের অসুবিধা না হয় তাই এই প্রকল্প চালু করলাম।’‌

মুখ্যমন্ত্রীর বক্তব্য

ধনধান্য স্টেডিয়াম থেকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন এই প্রকল্পের মাধ্যমে মাসে 10 হাজার টাকা পাবেন পড়ুয়ারা। ‘‌স্টুডেন্ট ইন্টার্নশিপ স্কিম চালু হল। প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে চাকরির পরীক্ষার জন্য। সেখানে প্রশিক্ষণ নিলে তারা সার্টিফিকেট পাবে। এবং সম্পূর্ণ বিনা অর্থে প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। মূলত এস সি, এস টি ক্যাটাগরির ছাত্র ছাত্রীদের মধ্যে অনেকেই রয়েছেন যাদের মেধা থাকা সত্বেও অনেক বড়ো ধরনের চাকরি পরীক্ষার প্রশিক্ষণ নিতে পারেনা অর্থের অভাবে ।

এই সরকারি প্রকল্পে টাকা দেওয়া শুরু হল রাজ্যে। টাকা ঢুকবে কবে?

যোগ্যশ্রী প্রকল্প Yuvashree Prakalpa এর মাধ্যমে কোনো তপশিলি জাতির ও আদিবাসী ছাত্র ছাত্রী যদি বিনামূল্যে সরকারি চাকরির প্রবেশিকা পাবেন। এছাড়া থেকে JEE, NEET ও WB JEE পরীক্ষার জন্য প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে নতুন প্রকল্পের মাধ্যমে। মুখ্যমন্ত্রী জানান এই চাকরির পরীক্ষার ট্রেনিংয়ের জন্য জেলায় দুটি করে মোট 46 সেন্টার করা হচ্ছে। সেখানে 1440 জন তপশিলি জাতি ও আদিবাসী পড়ুয়ারা প্রশিক্ষণ নিতে পারবে বলে জানা যাচ্ছে।

যোগ্যশ্রী প্রকল্প তথা Yogashree Scheme

এই Yuvashree Prakalpa এর মাধ্যমে বিভিন্ন সরকারি চাকরির প্রবেশিকা পরীক্ষা, ব্যাঙ্ক, রেল, পোস্ট অফিস, সামরিক ও আধাসামরিক বাহিনী, পুলিশ, সরকারি বিভিন্ন সংস্থায় গ্রুপ B, C এবং D পদের জন্য প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। তাদের জন্য 300 ঘণ্টার এবং ছ’মাসের এই কোর্সের জন্য 4 ঘণ্টা করে সপ্তাহে তিনদিন ক্লাসের ব্যবস্থা থাকবে। ফেব্রুয়ারি মাস থেকেই এই প্রকল্পের জন্য আবেদন জমা নেওয়া হবে।

লক্ষ্মীর ভাণ্ডারের টাকা পেতে দেরি হচ্ছে? এতো বিলম্ব না করে আজই এই কাজ করুন।

আপনিও যদি এস সি, এস টি ক্যাটাগরির পড়ুয়া হয়ে থাকেন আর ভেবে থাকেন JEE, NEET ও WB JEE পরীক্ষার জন্য প্রশিক্ষণ নেবেন কিন্ত অর্থের জন্য পারছিলেন না তাহলে আর চিন্তা নেই। যোগ্যশ্রী প্রকল্প বা Yuvashree Prakalpa এর মাধ্যমে আবেদন করুন আর পেয়ে যান বিনামূল্যে চাকরির প্রশিক্ষণের সুযোগ। এই প্রকল্পের উদ্ধোধন এর জন্য আদিবাসী ও তপশিলি সম্প্রদায়ের পড়ুয়ারা অনেকটাই খুশি। তাদের জন্য নতুন একটি পথ খুলে গেলো।
এমন আরও নিত্য নতুন প্রকল্পের খবরের আপডেট পেতে নিয়মিত এই পেজ ফলো করুন।
Written by Shampa Debnath.

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button