Pay Commission – বিজয়া দশমীতে পশ্চিমবঙ্গে DA নিয়ে হটাত সিদ্ধান্ত। ভাগ্য খুলছে 10 লাখ রাজ্য সরকারি কর্মীর?

পশ্চিমবঙ্গের বকেয়া ডিএ (Dearness Allowance) নিয়ে টালবাহানা ও আন্দোলন মামলা সবই চলছে সেই ২০১৬ সাল থেকে। 5th Pay Commission তথা পঞ্চম বেতন কমিশনে বকেয়া ডিএ রয়েছে ঢের। আর তার মধ্যেই 6th Pay Commission গঠিত হয়ে ঘোষণা। হয়। কিন্তু আগের বকেয়া না দিয়েই নাকি রাজ্য সরকার নতুন করে পে কমিশন চালু করেছে। এই অভিযোগে SAT এর দ্বারস্থ হয়েছিল রাজ্য সরকারি কর্মীরা। তবে রাজ্য সরকার এই বিষয়ে কর্ণপাত না করেই মামলায় আদালত কে জবাব দিয়েছে। আর সেই মামলা এখন হাইকোর্ট ছাপিয়ে সুপ্রীম কোর্টে।

Advertisement

West Bengal 6th Pay Commission DA News

এরমধ্যেই চলছে বাঙ্গালীর সেরা দুর্গোৎসব। আজ বিজয়া দশমীর মধ্য দিয়ে কার্যত শেষ হবে মায়ের আরাধনা। রাজ্যের সর্বত্র এখন উন্মাদনা তুঙ্গে। আনন্দে হুল্লোরে মেতে রয়েছেন প্রতিটি বাঙালি। তবে পুজোর এই আনন্দের মাঝেই Pay Commission তথা Salary Hike নিয়ে এরাজ্যের রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের জন্য উঠে এলো এক বড় আপডেট। যে খবরের কথা এখানে বলা হচ্ছে সেটি মূলত মহার্ঘভাতা (Dearness Allowance) প্রসঙ্গ।

Advertisement

রাজ্য সরকারি কর্মীরা বহুদিন ধরে দাবী জানাচ্ছেন তাদের প্রাপ্য মহার্ঘ ভাতা (DA) মেটানোর জন্য রাজ্য সরকারের কাছে। আর সেই নিয়েই এবার মুখ খুললেন রাজ্যের অর্থমন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য। কি বললেন তিনি দেখে নিন।
উল্লেখ্য, কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারী AICPI হারে বছরে দুবার বর্ধিত মহার্ঘভাতার সুবিধা ভোগ করে থাকে। একটি বাড়ে বছরের শুরুতে জানুয়ারিতে এবং অপরটি বাড়ে বছরের মাঝামাঝি করে জুলাই মাস নাগাদ। আগে কেন্দ্রীয় কর্মচারীদের মহার্ঘ ভাতা দেওয়া হতো ৩৮ শতাংশ করে।

Dearness Allowance

চলতি বছরের জানুয়ারি মাস থেকে তাড়িয়ে ৪২ শতাংশ করা হয়েছে। যার ফল স্বরূপ অনেকটাই বৃদ্ধি পেয়েছে কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারী (DA) এবং পেনশন রোগীদের (DR) বেতনের পরিমাণ। কিন্তু এখানেই থেমে নেই তারা, গত দু একদিন আগেই কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, মন্ত্রিসভার এক বৈঠকে নাকি মহার্ঘ ভাতা আরও ৪ শতাংশ বৃদ্ধি করার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। সেই স্বরূপ যদি Pay Commission দপ্তরে এই প্রস্তাব অনুমোদিত হয় তাহলে মহার্ঘ ভাতা সরাসরি বেড়ে হবে ৪৬ শতাংশ সর্বসাকুল্যে।

রাজ্য সরকারি কর্মীদের বক্তব্য

এদিকে কেন্দ্রের সরকারি কর্মচারীদের এরূপ সুবিধা ভোগ করতে রেখে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারি কর্মীদের মধ্যে সৃষ্টি হয় উত্তেজনা। আজ প্রায় দীর্ঘ ২ বছর ধরে পশ্চিমবঙ্গের রাজ্য সরকারি কর্মীরা বিক্ষোভ করে চলেছেন এই দাবি নিয়ে। প্রথমে সুপ্রিম কোর্টে এই মামলা দাখিল করা হয়। সুপ্রিম কোর্ট কর্মীদের স্বপক্ষে রায় দিলেও রাজ্য সরকার তা মানতে অস্বীকার করে। জেরে ক্রমশ বৃদ্ধি পেতে থাকে উত্তেজনা।

আরও পড়ুন, স্কুল এর শিক্ষকদের জন্য মানবিক পদক্ষেপ নিল রাজ্য মধ্যশিক্ষা পর্ষদ, আগে কখনও এমনটা হয়নি।

অবশেষে তাদের কাছে নত স্বীকার করে চলতি বছরের জুন মাস থেকে রাজ্য সরকারের তরফে বৃদ্ধি করা হয় ৩ শতাংশ মহার্ঘভাতা। “কিন্তু এটা কি আমাদের প্রাপ্য? যেখানে কেন্দ্রীয় সরকার জিনিসপত্রের দামের সঙ্গে তাল মিলিয়ে বাড়াচ্ছে তার কর্মচারীদের বেতন সেখানে আমাদের রাজ্য সরকার কেন সেই নিয়ম মানছে না?” এই বক্তব্যের সৃষ্টি হয় কর্মীদের মধ্যে। যার জেরে এখনো পর্যন্ত বিক্ষোভ থামেনি সংশ্লিষ্ট বিষয়কে ঘিরে।

দুর্গাপূজার ছুটি (Durga Puja Holiday 2023)

ডিএ আন্দোলন

চলতি মাসের ই ১০ এবং ১১ তারিখ কর্মবিরতি ডাক দেওয়া হয়েছিল তাদের তরফে। কিন্তু তখন থেকে তারা রাজ্য সরকারকে হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছিলেন, যদি পুজোর মধ্যেই তাদের দাবি মঞ্জুর না করা হয় তবে এরপর আরো ভয়ংকর হবেন তারা। এমনকি পুজোর পর নাকি আসল আন্দোলন শুরু হবে। রাজ্যের সব অফিস অচল করার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন তারা। সেই কারণে মহার্ঘ ভাতা প্রসঙ্গে রাজ্যের অর্থমন্ত্রী স্বয়ং সংবাদ জানালেন তাদের।

আরও পড়ুন, উচ্চমাধ্যমিক পাশ ছেলে মেয়েদের মাসে 2500 টাকা দিচ্ছে সরকার, পুজোর মধ্যেই আবেদন করুন।

এদিন অর্থমন্ত্রী বলেছেন, “ডিএ (Dearness Allowance) যেটা বাড়ানোর ছিল, সেটা আগেই বাড়ানো হয়ে গিয়েছে। এই ইস্যুটা এখন আদালতে বিচারাধীন আছে। তা নিয়ে কিছু বলব না। এই নিয়ে শীর্ষ আদালত সিদ্ধান্ত নেবে।” প্রসঙ্গত , কেন্দ্রীয় সরকার তার কর্মচারী এবং পেনশন ভোগীদের বেতন বৃদ্ধির আশা প্রদান করায় (7th Pay Commission DA News) বর্তমানে খুশির মেজাজে রয়েছেন তারা। কিন্তু এদিকে রাজ্য সরকারি কর্মীদের সামনে আবারো খাড়া হলো বাধা। দীর্ঘ সংগ্রামের পরেও তারা নিজেদের প্রাপ্যটুকু থেকে বঞ্চিত হলেন। রাজ্যের অর্থমন্ত্রীর ঘোষণা থেকে এটি স্পষ্ট হয়।
আরও আপডেট পেতে বাংলার চোখ ফলো করুন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button